Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

গাইবান্ধায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২

গাইবান্ধায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
গাইবান্ধা


  • Font increase
  • Font Decrease

গাইবান্ধা সদর উপজেলার দাড়িয়াপুরে মাইক্রোবাস ও  সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও চার জন আহত হন।

মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) রাতে গাইবান্ধা-ধর্মপুর সড়কের ভেলুপাড়া নামক স্থানে এ দুর্ঘনা ঘটে। আহতরা হলেন খোরশেদ আলম (৩৫) ও রোকন মিয়া (৩০)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মাইক্রোবাসটি গাইবান্ধার দিকে যাচ্ছিল। এ সময় অপর দিক থেকে আসা একটি সিএনজির সঙ্গে মাইক্রোবাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ বাধে।

এতে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে চালকসহ ছয় জন গুরুতর আহত হন। আহতদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক খোরশেদ আলমকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোকন মিয়া নামে আরও এক যাত্রীর মৃত্যু হয়।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মো. শাহারিয়া জানান, বাকি চারজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। দুর্ঘটনাকবলিত মাক্রোবাস ও সিএনজিটিকে পুলিশ উদ্ধার করেছে।

আপনার মতামত লিখুন :

৫ দফা দাবিতে রোহিঙ্গাদের সমাবেশ

৫ দফা দাবিতে রোহিঙ্গাদের সমাবেশ
৫ দফা দাবিতে রোহিঙ্গাদের সমাবেশ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সঙ্কটের দুই বছর পূর্তি ও পাঁচ দফা দাবিতে সমাবেশ করেছেন রোহিঙ্গারা। নিজেদের অধিকার আদায়ে ঐক্যবদ্ধ থাকার ঘোষণাও দিয়েছেন রোহিঙ্গা নেতারা।

উখিয়া উপজেলার কুতুপালংয়ের ক্যাম্প এক্স-৪ এ রোববার (২৫ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টায় এ সমাবেশ শুরু হয়।

আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটির চেয়ারম্যান মাস্টার মুহিব উল্লাহ, আব্দুর রহিম, মোহাম্মদ ইলিয়াছসহ অন্যান্য নেতারা সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে আসা রোহিঙ্গাদের পদচারণায় কানা কানায় পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে সমাবেশস্থল।

উল্লেখ্য, ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা সঙ্কটের দুই বছর পূর্তি। ২০১৭ সালের এ দিনে ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞের ঘটনা ঘটে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে। এরপর পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন রোহিঙ্গারা। বর্তমানে বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গার সংখ্যা ১১ লক্ষাধিক।

শিবচরে ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু

শিবচরে ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু
এডিস মশা, ছবি: সংগৃহীত

মাদারীপুরের শিবচরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সুমি আক্তার (৩০) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে শিবচর উপজেলার চারজনসহ মাদারীপুর জেলার মোট আটজন ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত ২০ আগস্ট শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন সুমি। অবস্থার অবনতি হওয়ায় শনিবার (২৪ আগস্ট) রাতে তাকে ঢাকা নেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু পথেই তার মৃত্যু হয়। সুমি শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ঘাট এলাকার স্পিডবোটচালক আনোয়ার ফকিরের স্ত্রী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শিবচর উপজেলা পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আব্দুল মোকাদ্দেস বলেন, এখনো হাসপাতালে ২৪ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র