স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় নিহত ২

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, চুয়াডাঙ্গা
শ্লীলতাহানির চেষ্টাকারী আকবরের ছুরিকাঘাতে নিহত হন স্কুলছাত্রীর মামা হাসান/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

শ্লীলতাহানির চেষ্টাকারী আকবরের ছুরিকাঘাতে নিহত হন স্কুলছাত্রীর মামা হাসান/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চুয়াডাঙ্গায় এক স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও অপহরণচেষ্টাকালে অপহরণকারীর ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্রীর মামা হাসান নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিহত হাসানের পিতা হামিদুল ও স্কুলছাত্রী সুমাইয়া (১৪) আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

এ সময় এলাকাবাসী ঘটনাস্থল থেকে অপহরণচেষ্টাকারী আকবর আলীকে আটক করে এবং পরবর্তীতে গণপিটুনিতে আকবর ঘটনাস্থলেই নিহত হন। নিহত আকবার আলী চুয়াডাঙ্গার দর্শনা বড় মদনা গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে।

শুক্রবার (২৩ আগস্ট) দিবাগত রাতে চুয়াডাঙ্গার সদর থানার আমিরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সদর থানা পুলিশ জানায়, শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে আকবর আমিরপুর গ্রামে হামিদুলের বাড়িতে স্কুলছাত্রী সুমাইয়ার ঘরে ঢুকে অপহরণ ও শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। এ সময় স্কুলছাত্রীর চিৎকারে তার নানা হামিদুল ও মামা হাসান এগিয়ে আসেন।

অপহরণে বাধা দেওয়ায় হামিদুল ও হাসানকে কুপিয়ে জখম করেন আকবর। এ সময় তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে আকবরকে আটক করে ও আহতদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠায়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক হাসানকে মৃত ঘোষণা করেন। এ খবর গ্রামে পৌঁছালে উত্তেজিত জনতার গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলে নিহত হন অপহরণচেষ্টাকারী আকবর।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :