হেলে পড়া বিদ্যুতের খুঁটি বাঁশ দিয়ে রক্ষার চেষ্টা!

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ)
হেলে পড়া বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বাঁশের ঠেক, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

হেলে পড়া বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বাঁশের ঠেক, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহের গৌরীপুরের রামগোপালপুর ইউনিয়নের বর্ধনপাড়া গ্রামে হেলে পড়া জরাজীর্ণ লোহার বৈদ্যুতিক খুঁটির পড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে বাঁশের খুঁটি দিয়ে ঠেক দেওয়া হয়েছে। তবে রোদ-বৃষ্টিতে ভিজে বাঁশের খুঁটি শুকিয়ে যাওয়ায় যেকোনো সময় দুর্ঘটনার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ- দীর্ঘদিন বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সংস্কার কিংবা নতুন খুঁটি স্থাপনে কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না।

ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কের শিবপুর পল্লী বিদ্যুৎ সাব-স্টেশনের পাশ দিয়ে শিবপুর-পুম্বাইল সড়কের মাঝামাঝি স্থানে বর্ধনপাড়া বাজার। ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা পিডিবি কার্যালয় থেকে এখানে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়। এই বাজারের সড়ক ঘেঁষে ও ফসলি জমিতে পিডিবির উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন রয়েছে। কিন্তু সঞ্চালন লাইনের একাধিক লোহার খুঁটি মরচে পড়ে জরাজীর্ণ হয়ে যাওয়ায় এগুলো হেলে পড়েছে।

এই অবস্থায় বিদ্যুৎ বিভাগ হেলে পড়া লোহার খুঁটি রক্ষায় বাঁশের খুঁটি দিয়ে ঠেক দিয়েছে। এদিকে লোহার খুঁটি হেলে পড়ায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের তার নিচের দিকে ঝুলে পড়েছে। কিন্তু বিদ্যুৎবিভাগ সঞ্চালন লাইন মেরামত না করে বাঁশের খুঁটি দিয়ে আশের পাশে গ্রামাঞ্চলের বাড়িঘরে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন সরবরাহ করেছে।

বর্ধনপাড়া গ্রামের কৃষকরা জানান, বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন ঝুলে পড়ার কারণে ঝুঁকি নিয়ে জমিতে চাষাবাদ করতে হয়। ঝড়-বৃষ্টিতে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে পড়লে কিংবা সঞ্চালন লাইন ছিড়ে গেলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে।

কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের দাবি- দ্রুত যেনো নতুন খুঁটি স্থাপন করে ঝুঁকিপূর্ণ সঞ্চালন লাইন সংস্কার করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ময়মনসিংহ বিভাগ (বিদ্যুৎ) কার্যালয়ের প্রকৌশলী প্রশান্ত ধর বলেন, 'বর্ধনপাড়া গ্রামের ঝুঁকিপূর্ণ খুঁটি সরিয়ে ও ঝুঁকিপূর্ণ লাইন সংস্কারের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।'

আপনার মতামত লিখুন :