ঠাকুরগাঁওয়ে মায়ের দেওয়া বিষে সন্তানের মৃত্যু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঠাকুরগাঁও
হাসপাতালে স্বজনদের ভিড়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

হাসপাতালে স্বজনদের ভিড়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে খাবারের সঙ্গে দুই সন্তানকে বিষ খাইয়ে দিয়েছেন নুরবানু আক্তার নামের এক মা। এ সময় নিজেও বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি।

এ ঘটনায়  নুরুজ্জামান নামের ১৮ মাসের শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁওয়ের সদর উপজেলার রুহিয়া থানার ঘনিমহেষপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত নুরুজ্জামান (১৮ মাস) ঘনি মহেশষপুর গ্রামের সেলিম উদ্দীনের ছোট ছেলে। এছাড়া বিষপানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন- শাম্মী আক্তার (৬) ও তার মা নুরবানু আক্তার।

পুলিশ ও পরিবারের স্বজনরা জানান, রাতে শাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া লাগে নুরবানুর। পরে সব ঠিক হয়ে যায়। পরের দিন সকালে তার স্বামী বাসা থেকে বের হয়ে যাওয়ার পরেই নুরবানু তার দুই বাচ্চার মুখে বিষ দিয়ে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ সময় স্থানীয় ও পরিবারের সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশু  নুরুজ্জামানকে মৃত ঘোষণা করেন।

নুরবানুর স্বামী সেলিম উদ্দীন বলেন, 'সকালে প্রতিদিনের ন্যায় কাজের সন্ধানে বাসা থেকে বের হই। আমার স্ত্রী দুই সন্তানের মুখে বিষ দিয়ে নিজেও বিষ খেয়েছে এমন খবর স্থানীয়রা জানালে আমি তিনজনকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি।'

নুরবানুর শাশুড়ি শাহার বানু বলেন, 'আমাকে খাওয়ায় না আমার বউ। এই নিয়ে গতকাল রাতে একটু ঝগড়া হয়েছিল। আজ সকালে সে রাগ করেই বাচ্চা দুইটাকে বিষ খাইয়ে নিজেও বিষ খেয়েছে। আমরা ভাবতে পারি নাই যে, সে এমন কাজ করবে।'

ঠাকুরগাঁও সদর থানার এসআই ফিরোজা জানান, শাশুড়ি সঙ্গে ঝগড়া কারণে দুই সন্তানের মুখে বিষ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে নুরবানু এমনটা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। তদন্ত শেষে বলা যাবে প্রকৃত ঘটনা।