নারায়ণগঞ্জের ২ উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর শতভাগ বিদ্যুতায়ন ঘোষণা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, নারায়ণগঞ্জ
প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত শামীম ওসমান ও সেলিম ওসমান ও জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত শামীম ওসমান ও সেলিম ওসমান ও জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে রূপগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ সদর এলাকায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এই কনফারেন্সের মাধ্যমে একযোগে দেশের ৮টি জেলায় বিদ্যুৎ প্রকল্প উদ্বোধন করেন তিনি।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলেন জেলার সংসদ সদস্য ও সরকারের বিভিন্ন কর্মকর্তারা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা আস্তে আস্তে একটি একটি করে উপজেলা বিদ্যুতায়ন করছি। এবার রূপগঞ্জ ও সদর উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করে দেওয়া হলো। বিদ্যুতের ঝলক এতে করে আরও বেড়ে যাবে এতে কোন সন্দেহ নাই।’

কনফারেন্সে নারায়ণগঞ্জ ৪ ও ৫ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও সেলিম ওসমান এবং জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন নারায়ণগঞ্জে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তাদের স্মরণ করিয়ে দেওয়ার প্রেক্ষিতে নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী আফরোজা আক্তার বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের নারায়ণগঞ্জে একটি বিশ্ববিদ্যালয় হতো তাহলে আমাদের অনেক বেশি উপকার হতো এবং ভালো হতো। তাহলে নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে অন্য কোথাও যেতে হতো না। আমরা এই জায়গার সন্তান, এই জায়গাতেই পড়াশোনা করতে পারতাম।’

তার এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘ঠিক আছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থা আমরা করবো। যদি কোনো বেসরকারি উদ্যোক্তা এগিয়ে আসে তাহলে আমরা দ্রুত অনুমোদন দিয়ে দেবো। নারায়ণগঞ্জে অনেক অর্থশালী লোক আছেন। তাদের যে কেউ বেসরকারিভাবে এগিয়ে আসলে আমরা পারমিশন দিয়ে দেবো।’

এর আগে জেলা প্রশাসক মো: জসিম উদ্দিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আপনি নারায়ণগঞ্জে অনেক কিছু দিয়েছেন, ইকোনমিক জোন দিয়েছেন, আপনার কাছে কৃতজ্ঞতার শেষ নেই, তারপরেও নারায়ণগঞ্জবাসীর অনেক চাওয়া। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং একটি সরকারি মেডিকেল কলেজ যদি দেন তাহলে নারায়ণগঞ্জবাসী উপকৃত হবে।’

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ এমপি শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান, জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক রুমন রেজাসহ প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :