ধান খাওয়ায় লালমনিরহাটে বিষ দিয়ে শতাধিক পাখি হত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, লালমনিরহাট
বিষ দিয়ে পাখিগুলো মারা হয়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

বিষ দিয়ে পাখিগুলো মারা হয়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ধান খাওয়ার অপরাধে লালমনিরহাটে বিষ প্রয়োগ করে শতাধিক পাখি হত্যা করেছেন আবুল কাশেম নামের এক চাতাল মালিক।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে এই ঘটনা ঘটে। দুপুরে পুলিশ এসে মৃত পাখিগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। এই ঘটনায় চাতাল মালিককে ভ্রাম্যমাণ আদালত ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট রোডের সিটি রাইস মিল লিমিটেডের সামনে মৃত পাখিগুলো জড়ো করে রেখে পাখি হত্যার বিচার চাই লেখা প্ল্যাকার্ড সাজিয়ে রেখেছেন এলাকাবাসী। সেখানে ২৯টি বাবুই, ২৪টি ঘুঘু, ২টি সারস, কোয়েল ১টি ও ১টি কবুতরের মরদেহ ছিল।

এই রাইস মিলেই পাখিগুলো হত্যা করা হয়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, লালমনিরহাট পৌরসভার সুকান দিঘী এলাকায় আবুল কাশেমের চাতাল মিলে শুকাতে দেওয়া ধান খেয়ে ফেলে পাখি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চাতাল মালিক কিছু ধানে বিষ মিশ্রণ করে চাতালের চারদিকে রেখে দেয়। এ সব ধান খেয়ে প্রায় শতাধিক বিভিন্ন প্রজাতির পাখি মারা যায়।

সদর থানা পুলিশ মৃত পাখিগুলো উদ্ধার করে জেলা পশু হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

পাখির মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে এলাকাবাসী, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

 

এদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘটনাস্থল তদন্ত করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুই তিং মং। এ ঘটনায় চাতাল মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন তিনি।

ওই এলাকার মাহাবুব হাসান মনু বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘চাতালে ধান খাওয়ার অপরাধে ২/৩ দিন ধরে বিষ প্রয়োগে পাখি হত্যা চলছে চাতালে। শনিবার সকালেও ওই চাতাল থেকে শতাধিক বিভিন্ন প্রজাতির মৃত পাখি উদ্ধার করা হয়েছে।’

সদর উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসার ডা. মকবুল হোসেন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘বন্য পাখিগুলো কীভাবে মারা গেছে তা তদন্ত করা হচ্ছে।’

আপনার মতামত লিখুন :