বাবার লাশ দেখতে চায় সন্তানরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, চাঁদপুর
নিহত সুমনের পরিবার। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

নিহত সুমনের পরিবার। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সৌদি আরবের নাজরান এলাকায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার মিরপুর গ্রামের সুমন বরকন্দাজ (৩৫)।

গত ১৪ আগস্ট মারা যান তিনি। এরপর গত ১ মাস ৪ দিন যাবৎ সেই দেশেই পড়ে রয়েছে তার লাশ।

এদিকে পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন সুমন। তার মৃত্যুতে হতাশায় দিন কাটছে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ পরিবারের সদস্যদের।

মৃত সুমনের স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার বলেন, ‘পরিবারের স্বচ্ছতা ফেরাতে পৈত্রিক ভিটে মাটি বিক্রিসহ প্রায় ১০ লাখ টাকা ঋণ করে ৬ মাস আগে সৌদি যায় সুমন। সেখানে গত ১৪ আগস্ট হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। তবে ১ মাস ৪ দিন হয়ে গেলেও সৌদির মালিক আমার স্বামীর লাশ দেশে পাঠাতে গড়িমসি করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার ভাশুর শরীফ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দা শাখার দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোনো সহযোগিতা পাচ্ছে না। সন্তানরা শেষবারের মতো তাদের বাবার লাশ দেখতে চায়। আমরা পরিবারের সবাই তার লাশের অপেক্ষায় আছি। দ্রুত লাশ ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহফুজুল হক বলেন, ‘সরকারের সহযোগিতা পেলে সুমনের লাশ দ্রুত দেশে আনা সম্ভব হবে। তাই আশা করব সরকার এ বিষয়ে সহযোগিতার পাশাপাশি ওই পরিবারটির পাশে থাকবে।’

আপনার মতামত লিখুন :