Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

এবার নেপালে নিষিদ্ধ হল পাবজি

এবার নেপালে নিষিদ্ধ হল পাবজি
ছবি: সংগৃহীত
টেক ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বিভিন্ন নেতিবাচক দিক এবং তরুণ প্রজন্মকে পাবজি’র আশক্তি থেকে মুক্ত করতে ভারতের গুজরাটে পাবজি নিষিদ্ধ হওয়ার পর এবার পার্শ্ববর্তী দেশ নেপালেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে জনপ্রিয় এই অ্যাকশান গেমটি।

মূলত স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি, সহিংসতা এবং তরুণদের মাঝে এর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে দূরে রাখতেই এই উদ্যোগটি নিয়েছে দেশটির সরকার।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাদ দিয়ে বৃহস্পতিবার ১১ এপ্রিল, দেশটির টেলিকমিউনিকেশন অধিদপ্তর পরিচালক সন্দীপ অধিকারী জানান, বর্তমান তরুণ প্রজন্ম এবং কিশোর-কিশোরীদের জন্য ক্ষতিকর পাবজি’র আশক্তি থেকে মুক্ত করার জন্য এই গেমটি নিষিদ্ধ করার আদেশ দিয়েছে সরকার।

তিনি বলেন, সকল ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান, মোবাইল কোম্পানি এবং অপারেটরদের কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই গেমটিকে নিষিদ্ধ করার জন্য।

কি এই পাবজি?

প্লেয়ার আননোওন'স ব্যাটলগ্রাউন্ড (পিইউবিজি বা পাবজি) একটি অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার অ্যাকশান গেম। যেখানে প্লেয়াররা ভার্চুয়াল জগতে মেতে উঠে সহিংসতায়। এই গেমে প্রতিনিয়ত নিজে টিকে থাকতে অন্যকে প্রতিহত করেই বেঁচে থাকতে হয় এখানে।

এছাড়া এর হাই রেজ্যুলেশন থ্রিডি গ্রাফিক্স ও ইন্টারেক্টেভি ফাংশনের জন্য গেমটি একটি আশক্তিতে পরিণত হয়েছে। সেই সাথে প্রতিদিন নতুন নতুন আপডেটে থাকে অ্যাডভেঞ্চারাস সব স্টেজ। যেগুলো উপভোগ করতে মরিয়া হয়ে থাকেন খেলোয়াড়রা।

ইতোমধ্যে ৭৩ শতাংশ পাবজি খেলোয়ার তাদের স্মার্টফোনেই খেলছেন গেমটি এবং বিশ্বব্যাপী ২০০ মিলিয়ন পাবজি খেলোয়াড় রয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক ভিডিও গেম ডেভেলপার কোম্পানি ব্লুহোল ২০১৭-তে বাজারে ছাড়ে এই গেম।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

আপনার মতামত লিখুন :

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ফেসবুকের গ্রুপ চ্যাট সেবা

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ফেসবুকের গ্রুপ চ্যাট সেবা
ছবি: সংগৃহীত

বন্ধুদের সাথে ঘুরতে যাবার পরিকল্পনা বা আড্ডা, কিংবা অফিসে সহকর্মীদের মাঝে যোগাযোগ সহজ করতে গ্রুপ চ্যাটের জনপ্রিয়তা ছিল তুঙ্গে। এখন সেই সেবাকে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তার খাতিরে বন্ধ করতে যাচ্ছে ফেসবুক।

শনিবার (১৭ আগস্ট) কমিউনিটি লিডারশিপ সার্কেল ফ্রম ফেসবুক-এ প্রকাশিত এক পোস্টে উল্লেখ করা হয়, আগামী ২২ আগস্ট থেকে বন্ধ করে দেয়া হবে গ্রুপ ফিচার। এর ফলে তখন থেকে শুধু গ্রুপের পূর্বের চ্যাটগুলো পড়া যাবে।

পোস্টে আরও জানানো হয়, বর্তমানে ফেসবুকের যে কাঠামো তৈরি করা হয়েছে, তার সাথে গ্রুপ চ্যাট ফিচারটি যায় না বলে ফেসবুক এই সুবিধাটি বন্ধ করে দিতে যাচ্ছে। এছাড়াও ফেসবুক তার ব্যবহারকারীদের তথ্যের সুরক্ষা দিতেও বদ্ধ পরিকর।

তবে ফ্রেন্ডলিস্টে না থাকা বন্ধুদের সাথে গ্রুপ চ্যাট করা না গেলেও, ফ্রেন্ডলিস্টে থাকা বন্ধুদের সাথে গ্রুপ চ্যাট করা যাবে। তবে সেবার ধরণটি কী হতে পারে তা নিয়ে এখনই মুখ খুলছে না ফেসবুক।

কৃষক ইউটিউবারের আয় ৪ হাজার মার্কিন ডলার!

কৃষক ইউটিউবারের আয় ৪ হাজার মার্কিন ডলার!
দার্শান সিং, ছবি: সংগৃহীত

ভারতের দার্শান সিং নামের একজন ইউটিউবার তার চ্যানেলে কৃষি কাজের প্রয়োজনীয় তথ্য এবং বিভিন্ন টিপস দিয়ে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

তার ভিডিওর মূল বিষয় হচ্ছে কৃষি সংক্রান্ত ভিডিও তৈরি করা। যদিও তিনি আদতে নন তবে অনেকেই তাকে এখন কৃষক ইউটিউবার বলেন। তার ভিডিওতে কৃষি কাজে কৃষকদের জন্য প্রয়োজনীয় বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করে ভিডিও বানান।

দার্শান সিং বলেন, ‘ইউটিউব থেকে ব্যাপক অনেক সাড়া পেয়েছি। এখন যেখানেই যাই সবাই আমাকে কিভাবে যেন চিনে ফেলে। প্রায় সব জায়গাতেই মানুষের সঙ্গে দেখা হয় পরিচিত হই। নতুন নতুন মানুষের সঙ্গে পরিচিত হতে ভালোই লাগে।'

তিনি জানান, তার মূল লক্ষ্যই হচ্ছে এমন সব প্রয়োজনীয় তথ্য খুঁজে বের করতে যা কৃষকরা আগে জানতেন না। সেসব তথ্যকে কৃষকদের জন্য সহজভাবে তাদের কাছে তুলে ধরা।

তার ভিডিওর মধ্যে রয়েছে- কিভাবে একটি দুগ্ধ খামারের কার্যক্রম শুরু করবেন, কিভাবে জমিতে বীজ বপন করবেন, কিভাবে গবাদি পশুদের পরিচর্যা করেবন ইত্যাদি।
এছাড়া তিনি কৃষি কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি নিয়েও রিভিউ করেন। কোন যন্ত্রটি কিভাবে ব্যবহৃত হবে, কি কি সুবিধা-অসুবিধা আছে সেগুলো কৃষকদের জানার স্বার্থে ভিডিওর মাধ্যমে তুলে ধরেন।

দার্শান জানান, শুরুর দিকে কোনো কোম্পানি তাকে পণ্য রিভিউর জন্য সুযোগ দিত না। কিন্তু যখন তার ভিডিওতে লাখ লাখ ভিউ হতে শুরু করে তখন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে তাদের পণ্য রিভিউ করার জন্য।

গুরতান সিং নামের একজন কৃষক জানান, তিনি ইউটিউবে দার্শানের গবাদি পশু পালন বিষয়ের ভিডিও গুলো দেখে উপকৃত হয়েছেন। যা তাকে ছোট গবাদি পশু লালন-পালন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সম্পর্কে জানতে সাহায্য করেছে।

কনটেন্ট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মানুষ যখন আমাকে জিজ্ঞেস করে কিভাবে ভিডিওতে বেশি ভিউ পাওয়া যাবে, কিভাবে সাবস্ক্রাইবার বাড়াবো ইত্যাদি। কিন্তু আমি তাদের উদ্দেশে বলব, যদি আপনার কনটেন্ট ভাল হয় তাহলে মানুষ অবশ্যই দেখবে।’

দার্শানের ইউটিউবের চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ২০ লাখ। আর ইউটিউব চ্যানেল থেকে মাসে তিনি ৪০০০ মার্কিন ডলার আয় করেন। এখন তিনি একজন ফুল টাইম ইউটিউবার।

আরও পড়ুন: খাবার খেয়েই মাসে যার আয় কোটি টাকা

সূত্র: বিবিসি

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র