টিকটক ব্যবহার করতে না দেওয়ায় নারীর আত্মহত্যা

টেক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের তামিল নাড়ুতে সংক্ষিপ্ত ভিডিও তৈরির অ্যাপ টিকটক ব্যবহার করতে না দেওয়ায় আত্নহত্যা করেছেন আনিতা (২৪) নামের দুই সন্তানের জননী। মৃত্যুর আগে তিনি টিকটকে বিষপানের ভিডিও ধারণ করেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিকটকের প্রতি আনিতার এমন আশক্তি তার স্বামীর পছন্দ ছিল না এবং এক পর্যায়ে তাকে টিকটকে ভিডিও তৈরি করতে নিষেধ করেন তার স্বামী। নিহতের স্বামী সিঙ্গাপুর প্রবাসী।

টিকটকে প্রকাশিত আনিতার সর্বশেষ ভিডিওতে দেখা যায়, তিনি একটি স্বচ্ছ বোতল থেকে কালো রঙের পানীয় পান করেন। যার কিছুক্ষণ পরেই তিনি মারা যান।

এ ঘটনার ভিডিওটি সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। অন্যদিকে দেশটির কিছু গণমাধ্যম ভিডিওটি ইউটিউবে প্রকাশ করে।

টিকটকের কারণে এটিই প্রথম মৃত্যু নয়। এর আগে এ বছরের জানুয়ারিতে মুম্বাইতে টিকটক ব্যবহার করতে না দেওয়ায় ১৫ বছরের এক কিশোর আত্নহত্যা করে। এপ্রিল মাসে দিল্লির সালমান জাকির (১৯) নামের এক তরুণ টিকটকের জন্য ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে মারা যান।

সম্প্রতি ভারতের মাদ্রাজ হাইকোর্ট টিকটকে অশ্লীল ভিডিও ধারণ এবং সমাজে এর নেতিবাচক প্রভাবের ফলে সেই প্রদেশে অ্যাপটি নিষিদ্ধ করেন। একই সঙ্গে গুগল ও অ্যাপেলের অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় টিকটক অ্যাপ। কিন্তু পরবর্তীতে ২৫ এপ্রিল সেই নিষেধাজ্ঞা আবার তুলে নেন মাদ্রাজ হাইকোর্ট।

টিকটক কি

চীনা বাইট ড্যান্স প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের তৈরি অ্যাপ টিকটক। যা দিয়ে সংক্ষিপ্ত ভিডিও তৈরি করা হয় এবং এসব কনটেন্টের বেশির ভাগই বিভিন্ন ছবির সংলাপের সঙ্গে অভিনয় করা, নিজের ব্যক্তিগত ভিডিও ধারণ, চেহারা বিকৃত করে ভিডিও ধারণ করা। কিন্তু কেউ কেউ আবার এর নেতিবাচক দিকটাকেই বেশি বেছে নিচ্ছেন। যার ফলে সমাজে সাইবারবুলিং, সাইবার ক্রাইমের মতো অপরাধ ঘটছে বলে সাধারণ মানুষের অভিযোগ রয়েছে।

সূত্র: গ্যাজেটস নাও।

আপনার মতামত লিখুন :