জব্দ হওয়া সম্পদ ফিরে পেতে হাইকোর্টে ইয়াবা ব্যবসায়ী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
হাইকোর্ট

হাইকোর্ট

  • Font increase
  • Font Decrease

ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরুল হক ভুট্টো তার দুটি বিলাস বহুল বাড়ি এবং প্রায় ছয় কোটি টাকার সম্পদ ছাড়িয়ে নিতে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন। কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নির্দেশে তার এ সম্পত্তি জব্দ করেছিল পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। সম্পদ জব্দের আদেশ স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন তিনি। রুল জারির আরজিও রয়েছে আবেদনে।

বুধবার (১৯ জুন) শুনানি শেষে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ আগামী ২৫ জুন পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

এদিন মানি লন্ডারিং মামলায় সিআইডির তদন্ত নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় বিশেষজ্ঞের মত জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। এজন্য বিশেষজ্ঞদের আদালতে হাজির করতে সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিককে বলেছেন আদালত।

আদালতে নুরুল হক ভুট্টোর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন প্রবীর রঞ্জন হালদার।

ইয়াবা পাচারের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার সম্পদের পাহাড় গড়েছিলেন কক্সবাজারের ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরুল হক ভুট্টো ও তার পরিবার। মানি লন্ডারিং আইনে (অর্থ পাচার) করা নারায়নগঞ্জের একটি মামলায় তদন্তকালে নুরুল হক ভুট্টোর অবৈধ সম্পদের তথ্য পায় আইন শৃঙ্খলাবাহিনী। সিআইডি পুলিশের অর্গানাইজড ক্রাইম (ইকোনমিক ক্রাইম স্কোয়াড) এর সহকারি পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসেন ২০১৭ সালের ২৯ আগস্ট টেকনাফ থানায় নুরুল হক ভুট্টো, তার পিতা, স্ত্রী, ভাইসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এই মামলায় পুলিশের আবেদনে গত ৫ মার্চ কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত নুরুল হক ভুট্টোর পরিবারের সম্পদ জব্দ করার নির্দেশ দেন।

মামলা দায়েরের পর ওইদিন পুলিশ নুরুল হক ভুট্টোকে গ্রেফতার করে। গতবছর ২৮ মার্চ হাইকোর্ট থেকে তিনি জামিনে কারামুক্ত হন। এ মামলার অপর আসামি নুর মোহাম্মদ (ভুট্টোর ভাই) গত ২২ মার্চ ক্রসফায়ারে নিহত হন।

আপনার মতামত লিখুন :