বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের সেবা দিতে ১৫ বছরের লাইসেন্স

ঢাকা: দেশে-বিদেশে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের সেবা দিতে ১৫ বছরের লাইসেন্স দেওয়া হচ্ছে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডকে (বিসিএসসিএল)। এই লাইসেন্সটি হবে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট ব্যবহার বিষয়ক লাইসেন্স।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সংস্থার সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী ফোরাম কমিশন সভায় সম্প্রতি বিসিএসসিএলকে এই লাইসেন্স প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এটি এখন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। মন্ত্রণালয় থেকে চুড়ান্ত অনুমোদনের পর আনুষ্ঠানিকভাবে এই লাইসেন্স দেওয়া হবে।

যদিও এ সংক্রান্ত কোনো গাইডলাইন এখনো তৈরি হয়নি, তবে স্যাটেলাইট কোম্পানির এক আবেদনের ভিত্তিতেই টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, স্যাটেলাইট সংক্রান্ত সেবা প্রদানের বিষয়ে কোনো গাইডলাইন না থাকলেও এটি ১৫ বছরের জন্যই দেওয়া হবে। এর আগে টেলিকম অপারেটরদেরও ১৫ বছরের জন্যই লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রেও ওই উদাহরণ অনুসরণ করা হবে।

সূত্র জানায়, সেবার বিনিমিয়ে পাওয়া রাজস্ব আয় ভাগাভাগি হবে ৫ দশমিক ৫ শতাংশ। সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলে জমা দিতে হবে ১ শতাংশ। কমিশন বৈঠকে লাইসেন্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও লাইসেন্স ফি চুড়ান্ত করা হয়নি। পরবর্তীতে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে পরামর্শের ভিত্তিতে লাইসেন্সের মেয়াদ ও ফি চুড়ান্ত করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ মে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করা হয়। দেশের প্রথম এ স্যাটেলাইট নিজ কক্ষপথে অবস্থান নেওয়ার পর এর কারিগরি পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

এসব পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে এটি পুরোপুরি কার্যকর হতে দুই মাসের মতো সময় লাগবে। এরপর থেকেই শুরু হবে এর বাণিজ্যিক ব্যবহার। এরই মধ্যে এই স্যাটেলাইট পরিচালনার জন্য স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের ১৮ কর্মকর্তা প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। খুব শিগগিরই দেশীয় এই কর্মীরাই এর নিয়ন্ত্রণ নিতে পারবেন বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

টেক এর আরও খবর

//election count down //sticky sidebar