দেশের ফ্রিল্যান্সারদের জন্য চালু হবে 'ফ্রি কার্ড': পলক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
বিডা মিলনায়তনে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় জুনাইদ আহমেদ পলক, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

বিডা মিলনায়তনে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় জুনাইদ আহমেদ পলক, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলছেন, 'দেশের ফ্রিল্যান্সাররা ভালো আয় করেন। কিন্তু তারা বিয়ে ও ব্যাংক ঋণসহ নানা সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তাই ফ্রিল্যান্সারদের নানা সুবিধা দিতে সরকার ফ্রি কার্ড চালু করতে চাই।'

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) আগারগাঁওয়ে বিনিয়োগ বোর্ডের (বিডা) মিলনায়তনে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা জানান।

সভায় জুনাইদ আহমেদ বলেন, 'ফ্রিল্যান্সারদের জন্য কী কী সুবিধা দেওয়া যায়, সে জন্যই আমরা এখানে বসেছি। বাংলাদেশে ছয় লাখ ফ্রিল্যান্সার রয়েছে। এ সভার মূল উদ্দেশ্য আন্তর্জাতিক অনলাইন মার্কেট প্লেসে কর্মরত ফিল্যান্সারদের সমস্যা চিহ্নিতকরণ ও সমাধানে করণীয় নির্ধারণ করা।'

প্রতিমন্ত্রী বলেন, 'ফ্রিল্যান্সারদের সুবিধা ও গাইডলাইন দিতে একটি উদ্যোগ নেওয়া হবে। পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহযোগিতা করছে ফ্রিল্যান্সার সংস্থা বিএফডিএস। এতে একটি সাইটে ফ্রিল্যান্সাররা তথ্য দেবেন। এটি পরে অ্যাপ হিসেবেও ব্যবহার করা হবে। এর বাইরে একটি পরিচয়পত্র থাকবে- যাতে নাম, মোবাইল নম্বরসহ ব্যক্তিগত তথ্য থাকবে। এর অপর পাশে কিউআর কোডসহ বিশেষ কোড থাকবে। যাতে ব্যাংক বা থার্ড পার্টি চাইলে ফ্রিল্যান্সারের পরিচয় যাচাই করতে পারবেন। এতে কেওয়াইসি’র সব ডেটা থাকবে।'

তিনি বলেন, 'এটি পৃথিবীর অন্যতম কোড হবে। এতে নিজস্ব কোড বসানো থাকবে। নিজস্ব ডেটাবেইজ হবে। এতে কার লোন, ব্যাংক লোনসহ নানা সুবিধা পাবেন ফ্রিল্যান্সাররা।'

ব্যাংক, সরকারি ও বেসরকারি খাতের কর্মকর্তারা জানান, এই খাত থেকে প্রতিবছর মিলিয়ন ডলার আয় হলেও ফ্রিল্যান্সাররা নানা সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তাই ফ্রিল্যান্সারদের সুবিধা দিতে 'ফ্রি কার্ড' চালু হবে। কার্ডের নাম হবে 'ফ্রি আইডি'।

আপনার মতামত লিখুন :