নতুন কলরেটে লাভবান গ্রাহকরা! 

ইশতিয়াক হুসাইন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম 

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা: মোবাইল ফোনে কলের ক্ষেত্রে অফনেট ও অননেট পদ্ধতি তুলে দিয়ে চালু করা হয়েছে অভিন্ন কলরেট। এতে সর্বনিম্ন কলরেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৫ পয়সা। নতুন এই নির্দেশনা এরই মধ্যে বাস্তবায়ন করেছে সবগুলো মোবাইল অপারেটর। এর ফলে যেকোনো মোবাইল অপারেটরেই একই রেটে কথা বলা যাচ্ছে। সর্বোচ্চ কলরেট থাকছে ২ টাকা।  

টেলিযোগাযোগ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিশ্বের কোথাও অফনেট (অন্য অপারেটরে) ও অননেট (একই অপারেটরে) পদ্ধতি নেই। বাংলাদেশেই এই পদ্ধতি চলে আসছিল। ১৪ আগস্ট মধ্যরাতে এই কলরেট চালু হওয়ার পর থেকে মোবাইল অপারেটরেরা নতুন প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। আর এসব প্যাকে নিয়ে গ্রাহকদের মধ্যে চলছে চুলচেরা হিসেব-নিকেশ। সংশ্লিষ্ট খাতের লোকেরাও বসে নেই। তারাও নতুন প্য্যাকেজ অফার নিয়ে বিশ্লেষণ করছেন। তবে মোবাইল অপারেটরেরা বলছেন, অভিন্ন কলরেট চালুর ফলে গ্রাহকরা লাভবান হচ্ছেন।

আরও পড়ুন, মোবাইলে ৪৫ পয়সা কলরেট কার্যকর হচ্ছে রাত ১২:০১ মিনিটে  

মোবাইল অপারেটরদের সূত্রে জানা গেছে, আগে দেশে মোট অননেট ও অফনেট কল ছিল যথাক্রমে ৬৫ ও ৩৫ শতাংশ। এই দুই রেটের মধ্যে মূল্যের পার্থক্য ছিল ১৪৫ শতাংশ। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের নতুন নির্দেশনার ফলে কলরেট কমেছে ৬৫ শতাংশ। এই হিসেবে এর সুফল পাচ্ছেন গ্রাহকরা। 

তারা বলছেন, আগে অননেটে সর্বনিম্ন কলরেট ২৫ পয়সা হলেও গড়ে গ্রাহকদের প্রায় ৪০ পয়সা ব্যয় করতে হতো। অফনেটে খরচ পড়তো ৮৯ পয়সা থেকে এক টাকা ৪০ পয়সা, যদিও এই সেগমেন্টে সর্বনিম্ন কলরেট ছিল ৬৫ পয়সা। 

আগে একই অপারেটরে অননেটে কথা বলতে সর্বনিম্ন ২৫ পয়সা আর অফনেটে অর্থ্যাৎ অন্য অপারেটরে কথা বলতে সর্বনিম্ন খরচ হতো ৬০ পয়সা। সর্বোচ্চ কলরেট ছিল ২ টাকা। 

এ নিয়ে বার্তা২৪.কমও সবগুলো মোবাইল অপারেটরের প্যাকেজ অফার বিশ্লেষণে বসেছিল। এতে দেখা যায়, সর্বনিম্ব ৪৫ পয়সা মিনিটের কলরেট চালুর পর একেক মোবাইল অপারেটর একেক কলরেট নির্ধারণ করেছে।

দেশের বৃহৎ মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনে এখন সর্বনিম্ন ৭৩ পয়সা (ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য চার্জসহ) মিনিটে কথা বলা যাচ্ছে। দ্বিতীয় বৃহৎ অপারেটর রবিতে ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য চার্জসহ সর্বনিম্ন ৬১ পয়সা মিনিটে কথা বলা যাচ্ছে। বাংলালিংকে কথা বলা যাচ্ছে সর্বনিম্ন ৬৫ পয়সা (ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য চার্জসহ) মিনিটে। তবে কোনো ধরনের প্যাকেজ ছাড়া নিশ্চিত প্যাকেজের সিমে স্বাধীন রিচার্জে প্রতি মিনিটে খরচ পড়ছে এক টাকা ৬১ পয়সা (ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য চার্জসহ)।

বাংলালিংকও প্যাকেজ কিংবা অফার ছাড়া ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য চার্জসহ এক টাকা ৬১ পয়সা চার্জ করছে। আর এই ক্ষেত্রে রবি চার্জ করছে এক টাকা ৬৪ পয়সা (ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য চার্জসহ)। রবির এয়ারটেল ব্র্যান্ড ফ্ল্যাটরেটে ভ্যাট, এসডি ও অন্যান্য্য চার্জসহ মিনিটে ৮৮ পয়সা চার্জ করছে। এই ব্র্যান্ডে সুনির্দিষ্ট টাকা রিচার্জে মিনিট প্রতি খরচ হচ্ছে ৬৬ পয়সা। সবগুলো মোবাইল অপারেটর এরই মধ্যে প্যাকেজ ও অফার ঘোষণা করলেও রাষ্ট্রায়ত্ব টেলিটক কোনো প্যাকেজ ঘোষণা করেনি। তবে সংশ্লিষ্ট অপারেটর সূত্রে জানা গেছে, তারা সর্বনিম্ন কলরেট ৪৫ পয়সাই চার্জ করবেন। 

আরও পড়ুন,  মোবাইল ফোনের সর্বনিম্ন কলরেট ৪৫ পয়সা চালু

আপনার মতামত লিখুন :