লক্ষ্মীপুরে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ৫

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ/ ছবি: বার্তা২৪.কম

লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ/ ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদরের একাংশ) আসনের পশ্চিম নন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্র দখলকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে পাঁচ জন আহত হয়েছেন। এ সময় পুলিশের লেগুনায় অগ্নিসংযোগ ও একটি ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

রোববার (৩০ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ছাত্রলীগের ওয়ার্ড সভাপতি শেখ মিরসহ পাঁচ জন আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিএনপির নেতাকর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে ভোটকন্দ্র দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় আওয়ামী লীগের কর্মীরা প্রতিহত করতে এগিয়ে এলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে শেখ মিরসহ পাঁচ জন আহত হন।

এক পর্যায়ে কেন্দ্রে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও পুলিশের একটি লেগুনায় অগ্নিসংযোগ করে বিএনপি কর্মীরা। ঘটনার সময় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী শহিদ ইসলাম পাপুলের নির্বাচনী কার্যালয়ের চেয়ার-টেবিলসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন তারা। পরে অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হামছাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম বলেন, ‘বিএনপির সন্ত্রাসীরা ভোট কেন্দ্রে হামলা চালিয়ে ব্যালট বাক্স ছিনতাই করে ভাঙচুর করেছে। এ সময় তারা আওয়ামী লীগের পাঁচ জনকে পিটিয়ে আহত করে।’

পশ্চিম নন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিজাইডিং অফিসার মো. সোহেল বলেন, ‘হঠাৎ এক দল লোক কেন্দ্রে হামলা চালিয়ে ব্যালট বাক্স ছিনতাই করে। এ সময় ২০ মিনিটের জন্য ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখা হয়। পরে পুলিশে খবর দিলে তারা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।’