গাইবান্ধায় বোরো ধানের কাঙ্ক্ষিত ফলনের সম্ভাবনা



তোফায়েল হোসেন জাকির, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, গাইবান্ধা, বার্তা২৪.কম
সবুজ ধানের ক্ষেত, ছবি: বার্তা২৪.কম

সবুজ ধানের ক্ষেত, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

গাইবান্ধা জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে নজর কাড়ছে ইরি-বোরো ধানের ক্ষেত। কৃষকের কাঙ্ক্ষিত সোনালি স্বপ্নের এ ক্ষেত এখন গাঢ় সবুজে পরিণত হয়েছে। গ্রীষ্মের হাওয়ায় দুলছে ধানের শীষগুলো।

এবার আশানুরূপ ফলন পেতে ইতোমধ্যে সার প্রয়োগ ও আগাছা পরিচর্যার কাজ শেষ করেছেন কৃষকরা। এমতাবস্থায় কাঙ্ক্ষিত ফলন পাওয়ার আশা করছেন কৃষকরা।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) জেলার বিভিন্ন অঞ্চলে সরেজমিনে ঘুরে এসব চিত্র দেখা গেছে। জেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে ইরি-বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ হয়েছে ১ লাখ ২৭ হাজার ৩৭৫ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে হাইব্রিড, উফশী ও স্থানীয় জাতের ধান রয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কৃষক সেকেন্দার আলী বার্তা২৪.কম-কে বলেন, 'চলমান আবহাওয়ার বিরূপ প্রক্রিয়া না ঘটলে গত বছরের তুলনায় এবার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে।'

সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কৃষক আজাদুল ইসলাম বার্তা২৪.কম-কে বলেন, 'সম্প্রতি ধানক্ষেতে কিছু পোকার আক্রমণ দেখা গেছে। এসব পোকা দমনে কীটনাশক প্রয়োগ করেও কাজ হচ্ছে না। কৃষকদের অভিযোগ, কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণকে কখনও মাঠ পর্যায়ে দেখা যায় না। তারা যদি কৃষকদের সঠিক পরামর্শ দিতেন তাহলে অধিক ফলন উৎপাদন করা সম্ভব।'

কৃষি কর্মকর্তা খাজনুর রহমান বার্তা২৪.কম-কে বলেন, 'কৃষকদের ভাল ফলন পেতে ইতোমধ্যে আমরা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছি। ধান চাষাবাদে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ ও উঠান বৈঠক করছি।'