প্রতিবাদ করায় মেয়ের বাবার কান ছিঁড়ল বখাটে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সাতক্ষীরা
হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কানের চিকিৎসা শুরু করেন চিকিৎসক, ছবি: সংগৃহীত

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কানের চিকিৎসা শুরু করেন চিকিৎসক, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় মেয়ের পিতার কান কামড়ে ছিঁড়ে নিয়েছে এক বখাটে। ঘটনাটি ঘটেছে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার ঘলঘলিয়া গ্রামে।

আহত আজিজুল ইসলাম খোকন (৪৫) জানান, তার মেয়েকে অনেকদিন ধরেই উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন এলাকার রিয়াজুল সরদারের ছেলে বখাটে আবু জাফর। আহত আজিজুল ইসলাম ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি।

আজিজুল ইসলামের ভাইপো আমিনুর রহমান জানান, সখিপুর সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজে এইচএসসি’র ২য় বর্ষের ছাত্রী আমার চাচাত বোন আঁখিকে ঘলঘলিয়া গ্রামের রিয়াজুল সরদারের ছেলে বখাটে আবু জাফর প্রতিনিয়ত ইভটিজিং করতেন। প্রতিদিনের ন্যায় বৃহস্পতিবার বখাটে আবু জাফর মোবাইল ফোনে আঁখিকে ফোন দেন। এসময় ফোনটি চাচা আজিজুল ইসলাম রিসিভ করায় সে ফোন কেটে দেয়।

সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাজারে বখাটে আবু জাফরের সঙ্গে দেখা হলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আবু জাফর ক্ষিপ্ত হয়ে চাচা আজিজুল ইসলামের কানে কামড় দেন। এ সময় তার কান কেটে মাটিতে পড়ে গেলে জাফর ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা কাঁটা কানসহ তাকে উদ্ধার করে সখিপুরস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ বিষয়ে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা জানান, ঘটনাটি শুনেই আমি হাসপাতালে তাকে দেখে এসেছি। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :