চাঁপাইনবাবগঞ্জে ইভটিজিংয়ের দায়ে ৩ জনের সাজা



ডিস্ট্রিক করেসপন্ডেন্ট, বার্তা ২৪.কম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৃথক দুই জায়গায় ইভটিজিংয়ের অপরাধে একজনকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দুইজনকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার (২১ জুন) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন এ দণ্ড দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার সরজন গ্রামের রজেদ আলীর ছেলে সোহাগ আলী (২২)।

স্থানীয়রা জানান, সরজন এলাকায় এক স্কুলছাত্রীকে সোহাগ প্রতিনিয়ত শ্লীলতাহানি করত। এমনকি ওই ছাত্রীকে তার সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার জন্য পরিবারের সদস্যদের হুমকি এবং অন্য কারো সাথে বিয়ে দিতে পারবে না বলেও হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলেন। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয়রা সোহাগকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে পুলিশ অভিযুক্ত সোহাগকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে নিয়ে আসলে এই সাজা দেন।

অন্যদিকে সদর উপজেলার পৌরসভার চরমহনপুর এলাকায় এক মেয়েকে বেশ কিছুদিন যাবৎ ইভটিজিং করে আসছে সন্দেহে আরও দুইজনকে চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

তারা হলেন- সদর উপজেলার চরমহনপুর এলাকার আলমগীর হোসেনের ছেলে রনি আলী (২৩) ও একই এলাকার রায়হান আলী (২২)।

এই বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আলমগীর হোসেন জানান, সরজন এলাকার এক স্কুল ছাত্রীর পরিবার অভিযোগ ও সাক্ষীদের উপস্থিতিতে অভিযুক্ত সোহাগকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। আর রনি ও রায়হান সদর উপজেলার চরমহনপুর এলাকায় ঘোরাঘরি করে এবং এক মেয়েকে ইভটিজিং করে আসছে বলে অভিযোগ করলে তাদের প্রত্যেক দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।