দুধ ক্রয়ের দাবিতে খামারিদের মানববন্ধন



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, কুড়িগ্রাম
সরকারিভাবে দুধ ক্রয়ের দাবিতে রাজারহাট বাজারে মানববন্ধনে খামারিরা/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সরকারিভাবে দুধ ক্রয়ের দাবিতে রাজারহাট বাজারে মানববন্ধনে খামারিরা/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

দুধ বিক্রি করতে না পারায় প্রতিদিন হাজার হাজার লিটার দুধ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন রাজারহাটের দুগ্ধ খামারিরা। তাই সরকারিভাবে দুধ ক্রয়ের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন কুড়িগ্রামের রাজারহাটের খামারিরা।

মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) রাজারহাট বাজারে দুই শতাধিক দুগ্ধ খামারির উপস্থিতিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজারহাট দুগ্ধ পল্লী খামারের আয়োজনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে দুগ্ধ খামারি রতন মন্ডল জানান, ‘তিন দিন ধরে দুগ্ধ সংগ্রহকারী প্রতিষ্ঠানগুলো দুধ ক্রয় বন্ধ রাখায় বর্তমানে খামারের উৎপাদিত দুধ দিয়ে ছানা, দই ইত্যাদি তৈরি করছি। কিন্তু একাধারে দীর্ঘদিন ক্রয় বন্ধ থাকলে আমরা নিঃস্ব হয়ে যাব।’

খামারি হায়দার আলী জানান, ঋণ সহযোগিতায় গড়ে উঠা খামারগুলোর উৎপাদিত দুধ এভাবে বিক্রি বন্ধ থাকলে গাভীর খাদ্য ক্রয় ও ঋণের টাকা পরিশোধ করা অসম্ভব হয়ে পড়বে।

আরেক খামারি রাজু আহমেদ বলেন, ‘বিক্রি না হওয়ায় কয়েকদিন থেকে বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে দুধ পাঠাচ্ছি। কিন্তু এভাবে কতদিন চলবে?’

জানা যায়, রাজারহাট উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে পাঁচ শতাধিক দুগ্ধ খামার ও পরিবারভিত্তিক ক্ষুদ্র পরিসরে পাঁচ শতাধিকসহ এক হাজারের অধিক দুগ্ধ খামার রয়েছে।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের সূত্রমতে, প্রতিদিন এই উপজেলা থেকে আনুমানিক ২৭ হাজার লিটার দুধ উৎপাদিত হয়। আগে এই উপজেলা থেকে ব্র্যাকের দুইটি, রংপুর ডেইরির একটি, এসডিএফ-এর একটি ও সমবায় সমিতির মাধ্যমে দুইটি সেন্টার থেকে দুধ ক্রয় করা হতো। এতেও খামারিদের উৎপাদিত সব দুধ বিক্রি হতো না।

সেন্টারগুলো হঠাৎ করে দুগ্ধ সংগ্রহ বন্ধ করে দিলে খামারিরা হাজার-হাজার মন দুধ নিয়ে বিপাকে পড়ছেন। সরকারিভাবে দুধ ক্রয়ের দাবিতে খামারিরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারক লিপিও প্রদান করেন।