৪ শতাধিক পাখি উদ্ধারের পর অবমুক্ত, দুজনকে কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
৪ শতাধিক বন্যপাখি উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়

৪ শতাধিক বন্যপাখি উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়

  • Font increase
  • Font Decrease

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বন্যপাখি ধরা ও পরিবহনের দায়ে দুই ব্যক্তিকে এক বছর করে কারাদণ্ড এবং আরও দুই জনকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। দণ্ডিতদের কাছ থেকে ৪৫৭টি বন্য টিয়া পাখি উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন পাখি ধরা ও পরিবহনে জড়িত চারজনকে জরিমানা ও কারাদণ্ড দেন।

বন্যপাখি ধরায় দুই জনকে কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত


কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুজন হলেন—শেরপুরের নালিতাবাড়ি উপজেলার কাপাসিয়া গ্রামের আজিজুল হক (৩৫) ও বগুড়ার দুপচাচিয়া উপজেলার পোওতা গ্রামের মোহাম্মদ রাজু (২৬)।

এ ছাড়া তানভীর হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা ও বাসেদ মৃধা নামে আরেকজনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, সোমবার রাতে সদর উপজেলার শিবিরের হাট এলাকায় একটি চেকপোস্ট বসায় মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। এ সময় যানবাহনে তল্লাশিকালে একটি মিনি ট্রাকে ৪৫৭টি টিয়া পাখি পেয়ে চারজনকে আটক করা হয়।

পরে মঙ্গলবার দুপুরে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিচারের মুখোমুখি করা হয়। উদ্ধার পাখিগুলোর মধ্যে ৭৯টি পাখি মারা যায়। অন্য পাখিগুলোকে অবমুক্ত করা হয়েছে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।