নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলকে অংশ নেওয়ার আহ্বান সিইসি’র

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এ কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় জনগণের মালিকানার অধিকার প্রয়োগের সুযোগ সৃষ্টি হয়; নতুন সরকার গঠনের ক্ষেত্র তৈরী হয়। এমন নির্বাচনে দেশের সব রাজনৈতিক দলকে অংশগ্রহণের জন্য আবারো আহ্বান জানাই।

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে এসব কথা বলেন তিনি।

সিইসি বলেন, সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি প্রতিযোগিতাপূর্ণ এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করি। প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচনে প্রার্থীর সমর্থকদের সরব উপস্থিতিতে অনিয়ম প্রতিহত করতে হয় বলে আমি বিশ্বাস করি। প্রতিযোগিতা এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতা যেন কখনও প্রতিহিংসা বা সহিংসতায় পরিণত না হয় রাজনৈতিক দলগুলোকে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাই।

তিনি আরো বলেন, তাদের (রাজনৈতিক দলগুলো) মধ্যে কোন বিষয় নিয়ে মতানৈক্য বা মতবিরোধ থেকে থাকলে রাজনৈতিকভাবে তা মীমাংসার অনুরোধ জানাই। প্রত্যেক দলকে একে অপরের প্রতি সহনসীল, সম্মানজনক এবং রাজনীতিসুলভ আচারণ করার অনুরোধ জানাই।

নূরুল হুদা বলেন, ভোটার, রাজনৈতিক নেতা-কর্মী, প্রার্থীর সমর্থক এবং এজেন্ট যেন বিনা কারণে হয়রানির শিকার না হন বা মামলা-মোকদ্দমার সম্মুখিন না হন তার নশ্চয়তা প্রদানের জন্য আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকরি বাহিনীর উপর কঠোর নির্দেশ থাকবে।

সিইসি জানান, দলমত নির্বিশেষে সংখ্যালঘু, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী, ধর্ম,জাত,বর্ণ ও নারী-পুরুষভেদে সকলের ভোটাধিকার প্রয়োগ ও নিজ নিজ বাসস্থানে নিরাপদে অবস্থান করতে পারবেন। নির্বাচনী প্রচারণায় সকল প্রার্থী ও রাজনৈতিক দল সমান সুযোগ পবে। সকলের জন্য অভিন্ন আচারণ ও সমান সুযোগ সৃষ্টির অনুকূলে নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ নিশ্চিত করা হবে। এসব নিয়ে শীঘ্রই প্রয়োজনীয় পরিপত্র জারি হবে।

 

নির্বাচন এর আরও খবর