নড়াইল-১,২: নৌকা আওয়ামী লীগ, নাকি জোটের?

শরিফুল ইসলাম, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
নড়াইল-১,২ আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি? ছবি: সংগৃহীত

নড়াইল-১,২ আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি? ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইল-১ আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি? এ নিয়ে চায়ের দোকান থেকে শুরু করে অফিস পাড়ায় সব জায়গায় চলছে জোর আলোচনার ঝড়। নৌকা তুমি কার? আওয়ামী লীগ, নাকি জোটের? তবে এ প্রশ্নের উত্তর জানতে অপেক্ষা করতে হবে মনোনয়ন প্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ পর্যন্ত।

জানা গেছে, নড়াইল-১ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেছে ২২ জন, আর নড়াইল-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সফল ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাসহ ১৭ জন। মাশরাফির মনোনয়ন প্রায় নিশ্চিত, এখন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বাকি মাত্র।

সূত্র জানায়, নড়াইল-১ আসনটি কালিয়া উপজেলা, একটি পৌরসভা ও সদর উপজেলার কলোড়া, বিছালী, সিঙ্গাশোলপুর, সেখহাটী ও ভদ্রবিলা এই পাঁচ ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। ইতোমধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নড়াইল-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

অপরদিকে মহাজোট থেকে শরীক দলের প্রার্থীরাও চালিয়ে যাচ্ছেন চেষ্টা। সংশ্লিষ্টদের ধারণা নৌকা হাতে পেলেই জয় নিশ্চিত। তাই আওয়ামী লীগসহ জোটের নেতারা নৌকা পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন বর্তমান সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, গহরডাঙ্গা মাদরাসার পরিচালক মুফতি রুহুল আমীন, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক কাজী সরোয়ার হোসেনসহ ২২ জন।

আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মনোনয়ন দেওয়া হলে এদের মধ্য থেকে পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বেশি।

এছাড়া বসে নেই মহাজোটের প্রার্থীরাও। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একাংশের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য কমরেড বিমল বিশ্বাস ও জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মিল্টন মোল্যা আসনটি পেতে মরিয়া হয়ে তদবির চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে নড়াইল-২ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুব ও ক্রীড়া উপ-কমিটির সদস্য শেখ মো. আমিনুর রহমান হিমু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এসএম আসিফুর রহমান বাপ্পীসহ ১৭ জন।

এখানে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকেই দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হবে। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটের শরিক ওয়ার্কার্স পার্টিকে এ আসনটি ছেড়ে দেওয়া হলেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তা দেয়া হবে না। আওয়ামী লীগ প্রধানের পছন্দের প্রার্থী মাশরাফি বিন মর্তুজার নাম যেকোনো সময় ঘোষণা করা হবে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জোটের শরিকদের সঙ্গে আসন বণ্টনের বিষয়টি চূড়ান্ত করেই তালিকা প্রকাশ করা হবে। আর যেখানে (নড়াইল-২ আসন) মাশরাফি নির্বাচন করবেন সেখানে অন্য কাউকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে না।

আপনার মতামত লিখুন :