চট্টগ্রাম-১: আ’লীগে হেভিওয়েট, ৩ প্রার্থীতে বিপাকে বিএনপি

ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন (ওপরে বামে), লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ, নুরুল আমিন (নিচে বামে) ও কামাল উদ্দিন আহম্মেদ/ ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রাম-১ আসনে (মিরসরাই) আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দিয়েছে দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেনকে। আর একাধিক প্রার্থী নিয়ে বিপাকে বিএনপি। এ নিয়ে মিরসরাইয়ের অফিসপাড়া থেকে চায়ের দোকানে চলছে আলোচনার ঝড়। ঘর গোছাতে পারেনি বিএনপি। কিন্তু আওয়ামী লীগ রয়েছে খোশমেজাজে।

স্বাধীনতার পর এ আসন থেকে ১৯৭৩, ১৯৮৬, ১৯৯৬, ২০০৮ সালে এবং গত ২০১৪ সালের ০৫ জানুয়ারি নির্বাচনে সাংসদ নির্বাচিত হন ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ। ১৯৮৬ সালে জাতীয় সংসদে তিনি বিরোধী দলীয় হুইপ ও ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

এই আসনে বিএনপি তিন জনকে দলীয় মনোনয়নের চিঠি দেয়। এরা হলেন মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান (সাময়িক বরখাস্ত) ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন, কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ সভাপতি লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ ও চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন আহম্মেদ।

গত ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই বাচাই শেষে লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ ও কামাল উদ্দিন আহম্মেদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। বিএনপির মনোনীত অন্য প্রার্থী নুরুল আমিনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছেন চট্টগ্রাম জেলা রিটানিং কর্মকর্তা। মনোনয়ন বাতিল হয়ে যাওয়ায় আপিল করেছেন নুরুল আমিন।

এ আসনে আওয়ামী লীগ বিএনপি ছাড়াও ইসলামী ফ্রন্টের মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শামসুদ্দিন, গণফোরামের মোহাম্মদ নুর উদ্দিন আহমেদ, মুসলিম লীগের শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী রেয়াজুল কবীর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এদিকে বিএনপির প্রার্থী চূড়ান্ত না হওয়ায় প্রার্থীরা নির্বাচনী গণসংযোগ বাদ রেখে বর্তমানে লবিংয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

বিএনপি’র লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ বার্তা২৪কে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী হলেও আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আমাকে বিএনপি থেকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দিলে আসনটি বিএনপি ফিরে পাবে।’

বিএনপি’র আরেক প্রার্থী উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আমিনের দাবি, তিনি মিরসরাইয়ে দীর্ঘদিন নানাভাবে তৃণমূলের সঙ্গে আছেন। নুরুল আমিন বার্তা২৪কে বলেন, ‘বিগত ১০বছর ধরে মামলা হামলার শিকার হয়েও দলের দুর্দিনে সাথে আছি। আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।’

নির্বাচন এর আরও খবর

//election count down