প্রার্থিতা ফিরে পেলেন বিএনপি’র ৩৯, আ'লীগের ১ জন

ছবি: বার্তা২৪.কম

একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়নয়পত্র বাতিলে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করে প্রার্থিতা ফেরত পেয়েছেন বিএনপির ৩৯ জন প্রার্থী। অপরদিকে দলটির ২০ জন প্রার্থীর আপিল নাচক হয়েছে। আর আপিল করে প্রার্থিতা ফেরত পেয়েছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের একজন প্রার্থী। 

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) আপিল শুনানির প্রথম দিনের কার্যক্রম পর্যালোচনা করে এ তথ্য পাওয়া গেছে। পর্যালোচনা করে দেখা গেছে রিটার্নিং অফিসার লাভজনক পদে থাকার কারণে যেসব প্রার্থীদের প্রার্থিতা বাতিল করেছিলেন আপিলে তার বেশিরভাগই প্রার্থিতা ফেরত পেয়েছেন।

বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদার নেতৃত্বে পূর্ণাঙ্গ কমিশন প্রথম দিনের মত আপিল শুনানি করেন। এতে আপিলের আবেদনকারীদের মধ্যে ১ থেকে ১৬০ ক্রমিক পর্যন্ত আবেদন নিষ্পত্তি হয়।

আপিলে বিএনপি’র যেসব প্রার্থিতা ফেরত পেয়েছেন তারা হলেন- বগুড়া-৭ আসনের মোরশেদ মিল্টন, ঝিনাইদহ-১ মো. আব্দুল ওয়াহাব, ঢাকা-২০ তমিজ উদ্দিন, কিশোরগঞ্জ-২ আখতারুজ্জামান, পটুয়াখালী-৩ গোলাম মওলা রনি, ঝিনাইদহ-২ আব্দুল মজিদ, ঢাকা-১ খন্দকার আবু আশফাক, দিনাজপুর-৩ আসনে সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম।

জামালপুর-৪ আসনে ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম, পটুয়াখালী-৩ মো. শাহজাহান, সিলেট-৩ আব্দুল কাইয়ুম, জয়পুরহাট-১ ফজলুর রহমান, পাবনা-৩ মো. হাসাদুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ-২ আবিদুর রহমান খান, সিরাজগঞ্জ-৩ মো. আইনাল হক, খুলনা-৬ এসএ শফিকুল আলম, ময়মনসিংহ-৭ আসনে মো. জয়নাল আবেদীন।

শেরপুর-২ আসনে একেএম মুখলেছুর রহমান, ঢাকা-৫ মো. সেলিম ভূঁইয়া, কুমিল্লা-৩ মুজিবুল হক, মানিকগঞ্জ-১ মোহাম্মদ তোজাম্মেল হক, ময়মনসিংহ-৩ আহাম্মদ তায়েবুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আবু আসিফ, পঞ্চগড়-২ ফরহাদ হোসেন আজাদ, মানিকগঞ্জ-৩ মো. আতাউর রহমান।

ঢাকা-১৪ আসনে সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিক, কুড়িগ্রাম-৩ আব্দুল খালেক, চট্টগ্রাম-১ নুরুল আমীন, কুমিল্লা-৫ মোহাম্মদ ইউনুস, চট্টগ্রাম-৩ মোস্তফা কামাল পাশা, গাইবান্ধা-৩ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, গাইবান্ধা-৫ আসনে মো: নাজিমুল ইসলাম।

রাজশাহী-১ আসনে মো. আমিনুল হক, দিনাজপুর-১ মো. হানিফ, চট্টগ্রাম-৮ এরশাদ উল্লাহ, সিরাজগঞ্জ-৫ আব্দুল্লাহ আল মামুন, নাটোর-৪ আব্দুল আজিজ, সিরাজগঞ্জ-৬ এমএ মুহিত ও সিরাজগঞ্জ-৫ আসনে মেজর (অব:) মঞ্জুর কাদের।

বিএনপির যেসব প্রার্থীদের প্রার্থীতা ফেরত আসেনি তাদের মধ্যে রয়েছেন খাগড়াছড়ি আসনের আব্দুল ওয়াদুদ ভূঁইয়া, পঞ্চগড়-১ মো. তৌহিদুল ইসলাম, বগুড়া-৩ মো. আব্দুল মুহিত, বগুড়া-৬ একেএম মাহবুবুর রহমান, হবিগঞ্জ-২ মো. জাকির হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে আখতার হোসেন।

ফেনী-১ আসনে মো. নূর আহাম্মদ মজুমদার, লালমনিরহাট-২ মো. জাহাঙ্গীর আলম, রংপুর-৫ মমতাজ হোসেন, চট্টগ্রাম-৫ মীর মোহাম্মদ নাসির, নীলফামারী-৪ মো. আমজাদ হোসেন, নীলফামারী-৩ ফাহমিদ ফয়সাল চৌধুরী, সিরাজগঞ্জ-৩ সাইফুল ইসলাম শিশির।

বাহ্মণবাড়িয়া-৪ আসনে মুশফিকুর রহমান, নাটোর-২ রুহুল কুদ্দুস তালুকদার, বগুড়া-৭ মোহাম্মদ সরকার বাদল, সিরাজগঞ্জ-২ ইকবাল হাসান মাহমুদ, নওগাঁ-৫ মোহাম্মদ নাজমুল হক, যশোর-২ সাবিরা নুর ও মাগুরা-২ আসনে খন্দকার মেহেদী আল মাসুম।

আর আওয়ামী লীগের ঝিনাইদহ-৪ আসনের প্রার্থী আব্দুল মান্নানও প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। বিদ্যুৎ বিলের কাগজ না দেওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছিলেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

নির্বাচন এর আরও খবর

//election count down