Alexa

স্মার্ট ঢাকার মেয়র হবেন নাগরিকরা: আতিক

স্মার্ট ঢাকার মেয়র হবেন নাগরিকরা: আতিক

কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটের ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখছেন মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম/ ছবি: বার্তা২৪.কম

ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা উত্তর সিটি করপোশনকে ‘স্মার্ট ঢাকা’ করতে চান। আর নাগরিকরাই এই স্মার্ট ঢাকার মেয়রের কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম আতিক।

বিজিএমই-এর সাবেক সভাপতি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ঢাকাকে ডিজিটাল নগর আপসের মাধ্যমে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে চান। সেই আপসের মাধ্যমে ঢাকাবাসী ছবি তুলে পাঠিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে মেয়রের ভূমিকায় অবর্তীর্ণ হবেন।’

মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটের মিলনায়তনে ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘একটি স্মার্ট ঢাকা চাই। আর এই স্মার্ট ঢাকার জন্য আমাদের হাতে স্মার্টফোনের মাধ্যমে ‘নগর‘ অ্যাপস ব্যবহার করে ঢাকাবাসী ছবি তুলে পাঠাবেন। বাকি কাজ হচ্ছে ডিএনসিসির। সাত দিনের মধ্যে যদি না করে, তাহলে তখন মেয়রকে জবাবদিহিতা করতে হবে।‘

উদাহরণ হিসাবে তিনি বলেন, ‘ময়লায় স্তুপের ছবি তুলে দেবেন; লাইটবিহীন ল্যাম্পোস্ট থাকলে ছবি তুলে দেবেন, ম্যানহোলের ঢাকনা না থাকলে ম্যানহোলের ছবি তুলে দেবেন- এই ছবি পাঠিয়ে দেওয়ার সাথে সাথে রেস্পেক্টিভ ডেস্কে (প্রত্যাশাপূরণ দপ্তর) যাবে।’

‘যদি প্রত্যাশাপূরণ দপ্তর সাত দিনের মধ্যে কাজ না করে, তখন স্বয়ংক্রীয়ভাবে মেয়রের নজরে আসবে। দায়িত্বরত কর্মকর্তার কাছে জবাবদিহিতা চাইবে মেয়র।’

এভাবে নাগরিকরা মেয়রের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবেন বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘ছবি পাঠিয়ে দিলেই আপনারা মেয়রের অবস্থানে কাজ করবেন। আপনারা কিন্তু কাজ করবেন কাউন্সিলর হিসেবেও।’

নির্বাচিত হলে ডিএনসিসিকে অটোমেশনের আওতায় আনতে চান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ধরুন কারো ডেড সার্টিফির্কেট আনতে গেলে আমরা নিজেরাই ‘যেতে আসতে, যেতে আসতে‘ ডেড হয়ে যাই।’

‘যতো বেশি আমরা যাবো, রাস্তায় ততোবেশি ট্রাফিক জ্যাম হবে। সুতরাং ডেড সার্টিফিকেট, বার্থ সার্টিফিকেট লাগতে পারে; অন্যান্য সার্টিফিকেট লাগতে পারে; অটোমেশনের মাধ্যমে হয়ে যাবে। শুধু একদিন গিয়ে সার্টিফির্কেটি নিয়ে আসতে হবে।‘

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছার ও সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ফরিদুর রহমান খান ইমরান ও সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মোবাশ্বের চৌধুরী।

আপনার মতামত লিখুন :