Alexa

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

শেষ সময়ে মেহেরপুরে প্রচারণার মচ্ছব

শেষ সময়ে মেহেরপুরে প্রচারণার মচ্ছব

ছবি: বার্তা২৪

তৃতীয় ধাপে মেহেরপুরের সবগুলো উপজেলা পরিষদের নির্বাচন আগামী রোববার (২৪ মার্চ)। শুক্রবার (২২ মার্চ) রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচারণা চালানো যাবে। শেষ মুহূর্তে তাই জেলাজুড়ে চলছে প্রার্থীদের প্রচারণা, ভোট চেয়ে মাইকিংয়ের মচ্ছব।

জেলার তিনটি উপজেলায় এখন চূড়ান্ত প্রার্থী ২৯ জন। আচরণবিধি অনুযায়ী দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মাইকিং চালানো যাবে। প্রত্যেক প্রার্থীর পক্ষে চলছে মাইকিং। নানাভাবে মাইকে প্রচারণা চালিয়ে ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হচ্ছে।

এদিকে, উচ্চস্বরে মাইক বাজানোর কারণে সাধারণ মানুষ অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন। বিশেষ করে দুপুরের পর থেকে অন্য যেকোনো দিনের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি মাইক বাজানো হচ্ছে। এতে শব্দ দূষণের শিকার হচ্ছেন এলাকার মানুষ। বিরক্ত প্রকাশ করেছেন বহু মানুষ।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থী ইতোমধ্যে জয়লাভ করেছেন। তারা হলেন- সদর উপজেলায় অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম ও মুজিবনগর উপজেলায় জিয়া উদ্দীন বিশ্বাস।

তবে গাংনী উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীসহ চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন মাঠে রয়েছেন। এতে ভোটের মাঠ সরগরম। মাইকিংয়ে প্রচারণার পাশাপাশি মিছিল সমাবেশও অব্যাহত রয়েছে। ভোটের রয়েছে তুমুল উত্তেজনা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553254953672.jpg

সদরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে আটজন প্রার্থী রয়েছেন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় এ পদে মাইকিং নেই। অপরদিকে মুজিবনগর উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনজনের মধ্যে দুইজন ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনজনের মধ্যে দুইজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। দুই পদে ছয় প্রার্থী প্রতীক পেলেও দুইজন প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে গেছেন।

গাংনীর চেয়ারম্যান প্রার্থী পাঁচজনের পাশাপাশি ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাতজন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থী মাঠে রয়েছেন।

মেহেরপুর জেলা রির্টার্নিং অফিসার আহমেদ আলী জানান, আজ রাত ৮টা এক মিনিট থেকে সকল ধরনের প্রচারণার মাইকিং বন্ধ থাকবে। তবে প্রার্থীরা পথসভা ও গণসংযোগ করতে পারবেন রাত ১২টা এক মিনিট পর্যন্ত।

আপনার মতামত লিখুন :