ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ শুরু!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, হবিগঞ্জ
ইভিএমে ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা, ছবি: সংগৃহীত

ইভিএমে ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

হবিগঞ্জ পৌরসভা মেয়র পদে উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সোমবার (২৪ জুন) সকাল ৯টা থেকে ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে আসতে শুরু করেছেন। একটানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত ইভিএমে ভোটগ্রহণ চলবে। হবিগঞ্জ পৌরবাসী এই প্রথম ইভিএমের মাধ্যমে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

এদিকে এখন পর্যন্ত ভোট কেন্দ্রগুলোতে তেমন ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়নি। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোট কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বাড়তে পারে বলে ধারণা করছেন নির্বাচন সংশ্লিষ্টরা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/24/1561349058588.jpg
ভোট দেয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন নারীরা, ছবি: বার্তা২৪

 

হবিগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে এবার ৪৭ হাজার ৮২০ জন ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ২৩ হাজার ৮৩৮ জন ও নারী ২৩ হাজার ৯৮২ জন। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র রয়েছে ২০টি, ভোট কক্ষ ১৪১টি।

প্রত্যেক কেন্দ্রে ১জন প্রিজাইডিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন। সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ১৪১ জন ও পোলিং অফিসার ২৮২ জন দায়িত্ব পালন করবেন। আইন-শৃঙ্খলার দায়িত্বে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি থাকবে।

নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের চারজন ও বাকি একজন বিএনপি নেতা।

প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত মিজানুর রহমান মিজান (নৌকা), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট নিলাদ্রী শেখর পুরস্কায়স্থ টিটু (নারিকেল গাছ), স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম ইসলাম তরফদার তনু (মোবাইল ফোন), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সৈয়দ কামরুল হাসান (জগ) ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মর্তুজ আলী (চামচ)।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/24/1561349131536.jpg
ভোটাররা ভোট দেয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন, ছবি: বার্তা২৪

 

ভোটের মাধ্যমে জনগণ তাদের মধ্য থেকে যে কোনো একজনকে পৌর পিতা হিসেবে বেছে নেবেন।

এদিকে, নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন। ভোটকেন্দ্রগুলোতে পর্যাপ্ত সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী রোববার (২২ জুন) মধ্যরাত থেকে প্রচার-প্রচারণা শেষ হয়েছে।

রিটার্নিং অফিসার খোরশেদ আলম জানান, সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে নিজেদের ভোট প্রয়োগ করছেন। এছাড়া যেহেতু এই প্রথম হবিগঞ্জে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হচ্ছে তাই ইতোমধ্যে প্রতিটি কেন্দ্রে ডামি ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে গত ২৮ ডিসেম্বর হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র জি কে গউছ। ফলে মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। এই শূন্য পদে সোমবার (২৪ জুন) উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :