Alexa

আয় ঘুম….

আয় ঘুম….

ঘুমের সমস্যা বড় সমস্যা। বহু মানুষ ঘুম না হওয়ায় রাত জাগা পাখির মতো জেগে থাকেন। হাজার রকম পদ্ধতি অবলম্বন করেও কোনো উপকার পান না। কিন্তু তাড়াতাড়ি ঘুমানোর যদি কোনো উপায় থাকে, তাহলে কেমন হয়? সম্প্রতি বেলর ইউনিভার্সিটির গবেষক ড. মিশেল স্কালিন একটি পরীক্ষা করেন। সেই পরীক্ষার মাধ্যমে তিনি তাড়াতাড়ি ঘুম আসার উপায় খুঁজে পেয়েছেন বলে দাবি। কিন্তু কেমন ছিল ড. স্কালিনের পরীক্ষা পদ্ধতি? প্রথমে, ১৯ থেকে ৩০ বছর বয়সী ৫৭ জন প্রাপ্ত বয়ষ্ক ব্যক্তিকে দুটি দলে বিভক্ত করে দেওয়া হয়। এরপর দু'টি দলকেই ড. স্কালিন তার ল্যাবরেটরিতে ঘুমাতে বলেন। প্রথম দলকে তিনি বলেন, তারা যেন তাদের শেষ করে ফেলা কাজগুলোর কথা লিখে ফেলেন। দ্বিতীয় দলকে বলা হয়, আগামীতে যে যে কাজ তারা করতে চান, সেগুলো লিখে ফেলতে। পরীক্ষায় দেখা যায়, যারা শেষ করা কাজ লিখছিলেন, তাদের তুলনায় ৯ মিনিট আগে ঘুমিয়ে পড়েছেন যারা আগামীতে কী কী কাজ করবেন, সেগুলো লিখেছিলেন। তাই পরীক্ষা শেষে ড. মিশেল স্কালিনের পরামর্শ, আপনি যদি তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়তে চান, তাহলে আগামীতে কোন কোন কাজ করতে চান, সেগুলো লিখতে থাকুন। কি পেয়ে গেলেন তো পথ! তাহলে, আজ রাত থেকেই শুরু হয়ে যাক।

আপনার মতামত লিখুন :