Alexa

জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জের কাপড়ের ব্যবসা

জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জের কাপড়ের ব্যবসা

কাপড় গোছানোর কাজ করছেন নারী শ্রমিক / ছবি: মেহেদী হাসান

আসন্ন ঈদের প্রয়োজনীয় কাপড়ের চাহিদা অনুযায়ী কাপড়ের জোগান দিতে জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জের রেলওয়ে সুপার মার্কেট। মার্কেট জুড়ে কাপড় বুনা থেকে শুরু করে কাপড়ে বিভিন্ন রঙ রাঙানো নিয়ে ব্যস্ত কারিগররা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574728551.jpg

পাশাপাশি কারিগরদের কাছে দিন দিন ভিড় জমাতে শুরু করেছেন দূর-দূরান্ত থেকে আসা পাইকারি ব্যবসায়ীরা। মার্কেটের বিভিন্ন দোকানে ঘুরে বিভিন্ন রং বেরঙের কাপড় সংগ্রহে ব্যস্ত তারা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574752942.jpg

বিভিন্ন দোকান মালিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এক কালারের কাপড়ের পাউন্ড সর্বনিম্ন ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১২০ টাকা পর্যন্ত। আবার প্রিন্টের কাপড়ের পাউন্ড ১২০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত পাইকারি বিক্রি হচ্ছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574845340.jpg

কারিগরদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১ পাউন্ড কাপড় দিয়ে সর্বোচ্চ দু’টি টি-শার্ট তৈরি করা যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574895938.jpg

এদিকে, বিগত ঈদের তুলনায় এবারের ঈদকে ঘিরে কাপড়ের চাপ বেশি রয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। সে অনুসারে কাজের চাপও বেশি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574923958.jpg

বিভিন্ন জায়গা থেকে কাপড়ের নিয়মিত অর্ডার আসছে, সে হিসেবে ঈদের মধ্যে এসব কাপড়ের অর্ডার বুঝিয়ে দিতে হিমশিম খেতে হবে বলে সঙ্কায় রয়েছেন ব্যবসায়ীরা। ফলে কাজে নিতে হচ্ছে অতিরিক্ত কারিগর।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574950648.jpg

হুঁশিয়ারি গার্মেন্টসের মালিক সোহাগ বলেন, ‘গতবারের তুলনায় এবারের ঈদে আমাদের কাজের চাপ বেশি। শবেবরাতের একসপ্তাহ আগে থেকেই এবার কাজের চাপ বেশ ভালোভাবেই শুরু হয়েছে। এবার এত অর্ডার আসছে ঈদের আগে ডেলিভারি কি করে দিব সেই চিন্তায় আছি।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557574987138.jpg

তিনি আরও বলেন, ‘বিভিন্ন ডিজাইনের টি-শার্ট বানানোর জন্য বিভিন্ন অঞ্চল ও বিভিন্ন জেলা থেকে সে অঞ্চচলের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন ডিজাইনের অর্ডার আমরা পেয়ে থাকি। গত ঈদে ৮ জন কাটিং মাস্টার দিয়ে কাজ করেছি। এবার ১৫ জন নিয়েছি। তার পরও কাজ ফুরাচ্ছে না।’

আপনার মতামত লিখুন :