Alexa

১৫ বছরে পা দিচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স

১৫ বছরে পা দিচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স

ছবি: সংগৃহীত

একটা সময় হলিউডের নতুন ছবিগুলো যখন মুক্তির পর বিভিন্ন দেশে পুরোনো হয়ে যেত তখন বাংলাদেশে আসত।

দর্শকদের সেই আক্ষেপেরও অবসান ঘটিয়েছে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’।

সোমবার (৮ অক্টোবর) ১৪ বছর পূর্ণ করছে রাজধানীর মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হলটি।

এ উপলক্ষে সন্ধ্যায় স্টার সিনেপ্লেক্সের স্টার জোনে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ জানায়,

অনুষ্ঠানে মুক্তিপ্রাপ্ত কয়েকটি শীর্ষ ব্যবসাসফল দেশিয় চলচ্চিত্রকে বিশেষ সম্মাননা দেবে স্টার সিনেপ্লেক্স। মনোনীত ছবিগুলোর কলাকুশলীদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেবেন বিশিষ্ট অতিথিরা।

অনুষ্ঠানে আরও থাকছে রেড কার্পেট ফটোসেশন ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/07/1538920301024.jpg

সন্ধ্যার এ জমকালো অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, শোবিজ জগতের তারকা, নির্মাতা, করপোরেট ব্যক্তিত্ব ও সংবাদমাধ্যম কর্মীরা।

স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ আরও জানায়,

দেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের বিশ্বমানের প্রেক্ষাগৃহ উপহার দেওয়ার লক্ষ্যে ২০০৪ সালের ৮ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে যাত্রা শুরু করে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’।

নান্দনিক পরিবেশ ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসংবলিত সাউন্ড সিস্টেমসহ নানা অভিনবত্বের মধ্য দিয়ে দর্শকের মন জয় করে প্রেক্ষাগৃহটি।

হলিউডের ছবির পাশাপাশি দেশিয় ছবিও নিয়মিতভাবে প্রদর্শিত হচ্ছে এখানে।

বর্তমানে একটি ভিআইপি হলসহ মোট ছয়টি হল রয়েছে এখানে।

এ ছাড়া কক্সবাজারের হোটেল সায়মনে একটি হল চালু হয়েছে।

অচিরেই ঢাকার সীমান্ত স্কয়ারে (সাবেক রাইফেলস্ স্কয়ার) একটি মাল্টিপ্লেক্স চালু হতে যাচ্ছে।

সামনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আরও কিছু হল চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।

১৪ বছর পূর্তিতে দর্শকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/07/1538920317928.jpg

চেয়ারম্যান মাহবুব বলেন,

‘দর্শকদের ভালোবাসা নিয়ে স্টার সিনেপ্লেক্স আজ এ পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে। আমরা শুরু থেকে দর্শকের প্রত্যাশা পূরণের চেষ্টা করে যাচ্ছি। দিনে দিনে এর পরিধি আরও বাড়বে।’

চলচ্চিত্রকে সম্মাননা প্রদান সম্পর্কে তিনি বলেন,

‘দেশের চলচ্চিত্রকে উৎসাহিত করাই এর মূল লক্ষ্য। আমরা সবসময় ভালো ছবির পক্ষে। আমরা চাই আমাদের দেশে ভালো ভালো ছবি নির্মিত হোক। বাংলাদেশের সিনেমা দেখার জন্য সবসময় হলে ভিড় লেগে থাকুক।’