Alexa

তুঝে সালাম

তুঝে সালাম

এ.আর. রহমান, ছবি: সংগৃহীত

ড. মাহফুজ পারভেজ, কন্ট্রিবিউটিং এডিটর, বার্তা২৪.কম

দক্ষিণ ভারতের অজ্ঞাত গ্রামের অতি সাধারণ পরিবারের একটি ছেলের পক্ষে বিখ্যাত হওয়ার মতো কোনো কারণ ছিল না। দারিদ্র যে কিশোরকে মাত্র ১১ বছর বয়সে স্কুল ছেড়ে কাজে যোগ দিতে বাধ্য করেছিল, সেই কিশোর এখন ইতিহাসের নির্মাতা।

সংসার চালোরে জন্য পড়াশোনা ছেড়ে গানের দলে যোগ দেয় কিশোরটি। ঘুরে বেড়ায় শহরে-গ্রামে। অখণ্ড মনোযোগে আত্মস্থ করতে থাকে সুরের নানা ধারা আর বিচিত্র সঙ্গীত। গানের দলের সঙ্গে মিশে প্রথম পাঁচ বছরেই ছেলেটি ৩০০ গান কম্পোজ করে ফেলে। কিন্তু সাধারণ শ্রোতার গান ঠিক ঠিক ধরতে পারে না এই অতি বিশিষ্ট সঙ্গীত প্রতিভাকে। হঠাৎ ঘুরে গেলো ভাগ্যের চাকা। একদিন কোনো এক অনুষ্ঠানে ছেলেটির সঙ্গে পরিচয় হলো দক্ষিণ ভারতের আরেক প্রতিভাবান চলচ্চিত্র পরিচালক এবং সে সময়ে ভারতের শ্রেষ্ঠ নির্মাতা মণি রত্নমের।

মণি রত্নম মনোযোগ দিয়ে ছেলেটির গান শোনে এবং তার সঙ্গীত পরিচালনার কলা-কৌশল খুঁটিয়ে পরীক্ষা করে দেখেন। এক বৈঠকেই মণি বুঝে যান যে তিনি ছাই চাপা আগুনের সন্ধান পেয়েছেন। ততক্ষণাৎ তিনি ছেলেটিকে তার পরবর্তী চলচ্চিত্র ‘রোজা’-এর সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্ব দেন।

সেটি ছিল ১৯৯২ সালের কথা। দক্ষিণী ছেলেটিকে তারপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয় নি। ইতিহাসের পর ইতিহাস নির্মাণ করে সে। ছিনিয়ে আনে বিশ্বসেরা অস্কার বিজয়ীর সম্মানও।

সঙ্গীতের ঐশ্বরিক প্রতিভাবান ছেলেটিকে শুধু ভারত নয়, সারা বিশ্ব এক নামে চেনে গানের জগতে ঐতিহাসিক সাফল্য ও অনন্যতম শৈল্পিক কৃতিত্বের জন্য। সৃষ্টিশীলতার জন্য তাকে স্থান দেওয়া হয় সর্বকালের শ্রেষ্ঠতম সঙ্গীত প্রতিভাবানদের সারিতে।

রোববার (৬ জানুয়ারি) এই সঙ্গীত যাদুকরের জন্মদিন। ১৯৬৭ সালের এই দিনে তার জন্ম হয়েছিল তামিলনাড়ুতে। জন্মের সময় তার নাম ছিল এস. এস দিলিপ কুমার। এখন তার নাম আল্লারাখ্খা রহমান। এক ডাকে সারা দুনিয়া তাকে চেনে এ.আর. রহমান নামে।

জন্মদিনে এই সংগ্রাম-সফল, স্বনির্মিত সঙ্গীত প্রতিভাকে সালাম।

বিনোদন এর আরও খবর

শাওনের ‘ইলশে গুঁড়ি’

শাওনের ‘ইলশে গুঁড়ি’

নতুন গান নিয়ে হাজির হচ্ছেন পরিচালক-অভিনেত্রী-গায়িকা মেহের আফরোজ শাওন। বাংলা সাহিত্যের প্রবাদপুরুষ হুমায়ূন আহমে...