দর্শকদের কাঁদালেন তাহসান-রাইসা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
দর্শকদের কাঁদালেন তাহসান-রাইসা

দর্শকদের কাঁদালেন তাহসান-রাইসা

  • Font increase
  • Font Decrease

‘যদি একদিন’ সিনেমায় বাবা মেয়ের অভিনয়ে মুগ্ধ স্টার সিনেপ্লেক্সের পুরো হল ভর্তি তারকা ও দর্শকরা। তাদের অভিনয়ের শুরু থেকে শেষ পযর্ন্ত কেঁদেছেন অনেকে। আবার অনেকে আটকে রেখেছেন চোখের পানি। বাবা-মেয়ের এমন ভালোবাসার দৃশ্য দেখে চোখে পানি আসাটাই স্বাভাবিক।

শনিবার (৯ মার্চ) বেলা ১১টায় বসুন্ধরা শপিং মলের স্টার সিনেপ্লেক্সে ছিল ‘যদি একদিন’ সিনেমার বিশেষ প্রদর্শনী। এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালেদ।

উদ্বোধন শেষে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর সাথে বসে ছবিটি উপভোগ করেন পরিচালক রাজ, তাহসান, শ্রাবন্তী, শিশুশিল্পী রাইসাসহ সংশ্লিষ্ট শিল্পীরা। এছাড়া ছোট ও বড় পর্দার অনেক তারকা, নির্মাতা ও অভিনেতাসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরাও একসাথে হলে ছবিটি উপভোগ করেন।

ছবির প্রিমিয়াম শেষে তাহসান সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার অভিনীত বড় পর্দায় এটিই প্রথম ছবি। শুরু থেকেই অনেক সাড়া পাচ্ছি। অভিযোগও শুনতে হচ্ছে অনেকের। কারণ, অনেকে হলের টিকিট পাচ্ছে না। আর এতেই বোঝা যাচ্ছে দর্শকরা ভালোবেসে ছবিটি গ্রহণ করেছে। দর্শকদের প্রেরণায় আমাদের সফলতা।’

পাশাপাশি সবাইকে হলে যেয়ে ছবিটি দেখার অনুরোধ জানালেন এই অভিনেতা।

এদিকে ‘যদি একদিন’ ছবিটি দর্শকদের সঙ্গে দেখতে ওপার বাংলা থেকে ছুটে এসেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। প্রথমেই নির্মাতা মুহাম্মদ মুস্তাফা কামাল রাজের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

ছবিটি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শ্রাবন্তী আনন্দে উচ্ছ্বসিত হয়ে এককথায় জবাব দেন, ‘হলে দর্শকদের হাততালি দেখেই বুঝেছি ছবিটি একেবারে সুপার ডুপার হিট হবে।’
দর্শকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এই ছবিতে অভিনয় করতে পেরে আমি সত্যিই গর্বিত।’

ছবিতে মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করা সাবেরী আলম বলেন, ‘ভালোবাসার বন্ধনকে ঘিরেই এই ছবিটি নির্মিত। আশা রাখেন সবারই ভাল লাগবে এবং সবাই হলে যেয়ে ছবিটি দেখবে।’

শিশু শিল্পী রাইসার অভিনয়ের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘ছোট রাইসার প্রশংসা না করে পারলাম না কারণ এই ছবিতে ও দারুণ অভিনয় করেছে। পুরো ছবিটি রাইসাকে কেন্দ্র করেই নির্মিত।’

নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘ছবিটির মধ্যে সবচেয়ে বেশি স্পর্শকাতর জায়গা ছিল বাবা-মেয়ে ভালোবাসার অনুভূতি। তাদের ভালোবাসার মিল-বন্ধনের অভিনয় দেখে কখন যে চোখে পানি চলে এসেছে টেরই পাইনি।’

এছাড়া গানের বেশ প্রশংসাও করেন তিনি।

ছবিটি দেখার পর কয়েকজন দর্শক বার্তা২৪.কমকে জানান, ‘যদি একদিন’ অসাধারণ একটি ছবি। তাহসান থেকে শুরু করে সবার অভিনয় ভাল ছিল।

শুধু অভিনয় না পুরো টিমের কাজ ভাল হয়েছে বলেও জানান তারা।

পরিবারের সাথে আসা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘এটি একটি পারিবারিক ছবি। অনেকদিন পর পরিবারের সাথে হলে এসে ছবি দেখেছি। অনেক ভাল লাগছে যার অনুভূতি প্রকাশ করা যাবে না।’

যৌথভাবে ছবিটির চিত্রনাট্য করেছেন আসাদ জামান ও নির্মাতা রাজ। জয়া নিবেদিত বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন- তাসকিন, মাসুম বাশার, মিলি বাশার, নাজিবা, সুজাত শিমুল, আনন্দ খালেদ, রানী আহাদ, নীলাঞ্জনা নীলা, জি এম শহীদুল প্রমুখ।

দেশের ২২টি প্রেক্ষাগৃহে শুক্রবার (৮ মার্চ) মুক্তি পায় ‘যদি একদিন’ সিনেমাটি। এরপর থেকেই ছবিটিকে নিয়ে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়।