Alexa

কঙ্গনা-আলিয়াকে ঘিরে দুই পরিবারের বাকযুদ্ধ

কঙ্গনা-আলিয়াকে ঘিরে দুই পরিবারের বাকযুদ্ধ

কঙ্গনা রনৌত, রঙ্গলি চান্দেল, সোনি রাজদান ও আলিয়া ভাট

রাধা কৃষ্ণ জাগারলামুড়ি পরিচালিত ‘মনিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিলো গত ২৫ জানুয়ারি। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন কঙ্গনা রনৌত। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবিটি প্রযোজনাও করেছিলেন তিনি। ৯৯ কোটি রুপি বাজেটের ছবিটি আয় করে নিয়েছিলো দেড়শ কোটি রুপি।

‘মনিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ ছবিটি মুক্তির পর সকলেই এর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছিলেন। কিন্তু নারীর ক্ষমতায়ন ও জাতীয়তাবাদকে নিয়ে নির্মিত ছবিটির পক্ষে না দাঁড়ানোয় আলিয়ার উপর চটেছিলেন বলিউডের এই অভিনেত্রী। আর সেখান থেকে শুরু হয় কঙ্গনা-আলিয়ার দ্বন্দ্ব।

এই দ্বন্দ্ব এখন শুধু কঙ্গনা-আলিয়ার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। এতে এখন যোগ দিয়েছেন দুই পরিবারের সদস্যরাও।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ্যে চলছে দুই পরিবারের বাকযুদ্ধ। আলিয়া ভাট ও তার প্রেমিক রণবীর কাপুরকে কঙ্গনার আক্রমণের পর আলিয়া ও তার মা সোনি রাজদানের ব্রিটিশ নাগরিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কঙ্গনার বোন রঙ্গলি চান্দেল।

এখানেই শেষ নয়, আলিয়া ভাটের বাবা মহেশ ভাটের বিরুদ্ধেও অভিযোগ তুলেছেন রঙ্গলি। তিনি বলেন- বোন কঙ্গনার বয়স সে সময় ১৯ চলছিল ‘ওহ লামহে’ সিনেমার প্রিভিউ। ওই সময় কঙ্গনার দিকে চাপ্পল ছুড়ে মেরেছিলেন মহেশ ভাট!

রঙ্গলির এই মন্তব্যের পর সোনি রাজদান টুইটারে লিখেছিলেন- মহেশ ভাটই সেই মানুষ যে কঙ্গনাকে সুযোগ দিয়েছেন। তারপরও সে কী করে তার স্ত্রী ও মেয়েকে এভাবে আক্রমণ করতে পারে? মেয়েকে বারবার যা তা বলেই যাচ্ছেন। অপমান ও হেনস্তা করার সুযোগ তো তিনি ছাড়ছেই না।

পরে অবশ্য এই টুইটটি ডিলিট করে দেন সোনি রাজদান।

এদিকে, আলিয়ার পক্ষে সহানুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে রঙ্গলির আক্রমণের শিকার হন অভিনেতা রণদীপ হুদাও। রঙ্গলির মতে, আলিয়ার ‘চামচাগিরি’ ছাড়া কোনো যোগ্যতা নেই। আর রণদীপ হুদা ‘ব্যর্থ’ অভিনেতা।

আপনার মতামত লিখুন :