Barta24

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

‘জিরো’ ছিল ভুল ছবি, স্বীকার শাহরুখের

‘জিরো’ ছিল ভুল ছবি, স্বীকার শাহরুখের
‘জিরো’ ছবির দৃশ্যে শাহরুখ খান
বিনোদন ডেস্ক


  • Font increase
  • Font Decrease

বলিউড কিং শাহরুখ খান। ২৭ বছরের ক্যারিয়ারে তিনি উপহার দিয়েছেন অসংখ্য ব্লকবাস্টার ছবি। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরে বক্স অফিসে সফলতার মুখ দেখছেন না বলিউডের এই অভিনেতা।

সবশেষ ‘জিরো’ ছবিতে অভিনয় করেছেন শাহরুখ খান। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ ও আনুশকা শর্মা। এছাড়া অতিথি চরিত্রে দেখা গেছে প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবী, রানী মুখার্জি, কাজল, দীপিকা পাড়ুকোন ও সুপারস্টার সালমান খানকে। কিন্তু এতো তারকার আবির্ভাবও বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়া থেকে বাঁচাতে পারেনি ছবিটিকে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/20/1555742496611.jpg

‘জিরো’র ব্যর্থতায় একদম ভেঙে পড়েছেন শাহরুখ খান। এমনকি এখন তার হাতে কোনো ছবির কাজ নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বেজিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের নবম আসরে দেখানো হয়েছে ‘জিরো’। যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহরুখ।

এর আগে ‘জিরো’ প্রসঙ্গে চীনের এক টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাহরুখ বলেন, “ভারতে ‘জিরো’ তেমন সাফল্য পায়নি। হয়তো ছবিটি আমার পক্ষে ভুল ছিল। তাই চীনের মানুষ ‘জিরো’ কীভাবে নেবেন তা নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। আশা করছি, এই ছবি চীনের মানুষের ভাল লাগবে।”

শাহরুখ আরও বলেন, ‘জিরো’ ফ্লপ হওয়ায় খারাপ লেগেছে। ৩ বছর ধরে একটি ছবি তৈরি হল, কিন্তু সেটা চলল না। এমন দিন দেখতে চাইনি। ৩ মাস পর নিজে ছবিটি দেখবো। এরপর বোঝার চেষ্টা করবো ঠিক কোথায় কোথায় ভুল হয়েছিল।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/20/1555742517947.jpg

শাহরুখ জানিয়েছেন, তার হাতে এই মুহূর্তে কোনও ছবি নেই, কোন ছবিতে কাজ করবেন এখনও ঠিক করেননি। ঠিক করেছেন মাস কয়েকের ছুটি নেবেন, তারপর চিন্তা-ভাবনা করে দেখবেন। কারণ যে ছবিই হাতে নিবেন তা নিয়ে নিজের ছাপিয়ে যেতে চান তিনি। ৩০ বছর ধরে কাজ করছি, দিনে ১৬ ঘণ্টা কাজ করি। সেই কাজ যদি আগ্রহী না করে তোলে তাহলে তা করার যৌক্তিকতা কোথায়।

আপনার মতামত লিখুন :

‘বিশ্বসুন্দরী’তে চম্পা!

‘বিশ্বসুন্দরী’তে চম্পা!
চম্পা

চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত ‘বিশ্বসুন্দরী’তে সিয়াম আহমেদ ও পরীমনির সঙ্গে এবার যুক্ত হয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী চম্পা।

গত ১৬ জুলাই থেকে নরসিংদীর শিবপুরে ‘বিশ্বসুন্দরী’র শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন কিংবদন্তী এই অভিনেত্রী।

নতুন ছবিটি প্রসঙ্গে চম্পা বলেন, “এ ছবির গল্প ও আমার অভিনীত চরিত্র সম্পর্কে জেনেই ছবিটি করতে সম্মত হয়েছি। আমাদের বয়সী অভিনয়শিল্পীদের প্রাধান্য দিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে খুব একটা চলচ্চিত্র নির্মিত হয় না। তবে ‘বিশ্বসুন্দরী’ চলচ্চিত্রে দর্শকরা আমাকে যে চরিত্রে এবং যেভাবে দেখবেন, তা এর আগে দর্শক আমার কাছ থেকে পাননি।”

সিয়াম ও পরীমনির সঙ্গে অভিনয় প্রসঙ্গে চম্পা বলেন, “ভালো লাগছে সিয়াম ও পরীমনির সঙ্গে কাজ করতে পেরে। পরীমনির সঙ্গে নাটক করতে গিয়েই বুঝেছিলাম, চলচ্চিত্রের নায়িকা হবার সব ধরনের গুণ ওর মধ্যে রয়েছে। তখন আমিই বেশ কয়েকজন প্রযোজককে পরীমনির কথা বলেছিলাম। আর সম্প্রতি ‘শান’ নামের আরেকটি চলচ্চিত্রে কাজ করতে গিয়ে সিয়ামকে চিনেছি, জেনেছি। অসম্ভব প্রতিশ্রুতিশীল একটি ছেলে। অনেকদিন পর একজন নায়কের অভিনয়, ব্যক্তিত্ব, বিনয় আমাকে মুগ্ধ করেছে। আমার মনে হয় ‘বিশ্বসুন্দরী’ সিয়াম-পরীমনিকে অন্য উচ্চতায় পৌঁছে দেবে।”

এবারই প্রথম একসঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করছেন সিয়াম ও পরীমনি। এটি নাট্যনির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালিত প্রথম সিনেমা। এর কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন রুম্মান রশীদ খান। প্রযোজনা করছে সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড।

সজল-অপর্ণার গল্প থাকবে আজ

সজল-অপর্ণার গল্প থাকবে আজ
সজল ও অর্ষা, ছবি: সংগৃহীত

তিশা, মায়া ও নাইম তিন বন্ধু। হঠাৎ করেই তারা প্ল্যান করে নেপালে আসবে। মায়া ও নাইমের কোন ঝামেলা না থাকলেও তিশা পারিবারিক বাঁধার সম্মুখীন হয়। তিশার পরিবার বেশ রক্ষণশীল। বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে ঢাকার বাইরে যেতে দিতেই তারা নারাজ।

সেখানে দেশের বাইরে যেতে দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না। এদিকে তিশার বিয়ে ঠিক হয়েছে। তাই তিশা ও মায়া মিলে তিশার বাবাকে কনভিন্স করে যাওয়ার জন্যে। কারণ বিয়ের পরে তো আর বন্ধুদের সঙ্গে এভাবে কোথাও যাওয়া হবে না। পরে তিশার বাবা যাওয়ার অনুমতি দেন।

তিশা ও মায়ার সঙ্গে বাজি ধরে নাইম বিদেশি এক তরুণীর সঙ্গে খাতির জমিয়ে ফেলে। তা দেখে মায়া মজা পেলেও তিশা রেগে যায়। নাইম কেন বিদেশি মেয়েদের সঙ্গে ফ্ল্যার্ট করে? নাইমের অকপট জবাব, সে বিদেশি মেয়ে বিয়ে করে বিদেশে চলে যাবে। ধনী হবে। তিশার তখন পাল্টা প্রশ্ন ধনী হয়ে কি হবে? নিজের উপার্জনে ধনী হলে সুখ পাওয়া যায়। অন্যের ধনে পোদ্দারি করে সুখ আসে না।

এদিকে তিশাকে সারপ্রাইজ দিতে আসে হবু বর জনি। তাকে দেখে তিশা অবাক হয়। একইসঙ্গে রেগে যায়। কারণ সে জনিকে এখানে আশা করেনি। তাই একটু মিসবিহেভও করে। সে এসময়টা বন্ধুদের সঙ্গে কাটাতে এসেছিলো এটা জনি বুঝতে পেরে অপমানিত হয়ে চলে যায়।

এমনই গল্পে আজ শনিবার (২০ জুলাই) রাত ৮:৩০ মিনিটে মাছরাঙা টিভিতে প্রচারিত হবে টেলিফিল্ম 'সবার একটা গল্প থাকে'। নাটকটি রচনা করেছেন শফিকুর রহমান শান্তনু। পরিচালনা করেছেন দীপু হাজরা। অভিনয়ে সজল, অপর্না, কল্যান কোরাইয়া, মাহা ও একটি বিশেষ চরিত্রে অর্ষা।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র