Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

আবারও প্রাচ্যনাটের ‘ট্র্যাজেডি পলাশবাড়ি’

আবারও প্রাচ্যনাটের ‘ট্র্যাজেডি পলাশবাড়ি’
‘ট্র্যাজেডি পলাশবাড়ি’ প্রাচ্যনাটের দৃশ্য
বিনোদন ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

২০০৫ সালের ১১ এপ্রিল গভীর রাতে সাভারের পলাশবাড়িতে ধ্বসে পড়ে স্পেকট্রাম সোয়েটার অ্যান্ড নিটিং ফ্যাক্টরি। নয়তলা ভবনে তখন রাতের শিফটে কাজ করছিলেন শতাধিক কর্মী। সেই ঘটনায় নিহত হয় প্রায় ৬৪ জন। তদন্ত কমিটির রিপোর্টে জানা যায়, কোনো রকম ঝুঁকি মোকাবিলার ব্যবস্থা ছাড়াই ঘটনার তিন বছর আগে একটি জলাভূমির ওপর এটি তৈরি হয়।

সেই ঘটনাকে কেন্দ্রীভূত করে প্রাচ্যনাট মঞ্চে আনে তাদের ৩০তম প্রযোজনা ‘ট্র্যাজেডি পলাশবাড়ি’। অনেকদিন পর আবারও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মূল মিলনায়তনে দেখা যাবে এটি। আগামী ১৬ জুন সন্ধ্যা ৭টায় এর প্রদর্শনী শুরু হবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/15/1560562337941.jpg তারাভানকে ঘিরে ‘ট্র্যাজেডি পলাশবাড়ি’র গল্প। সেদিনের নাইট শিফটে কাজ করতে আসা কর্মীদেরই প্রতিচ্ছবি এই নারী। নাটকটি গ্রন্থিত হয় তার স্মৃতি, স্বপ্ন ও জীবনচক্রের রোমন্থনে। যেকোনো সময় মাথার ওপর ছাদ ভেঙে পড়ে পিষে দেবে জীবন, এমনকি নড়ার উপায়টুকুও নেই। এমন অবস্থায় সে যেন জীবনের পাওয়া-না পাওয়ার হিসেব মিলিয়ে নেয়। সেই হিসেব প্রতিনিধিত্ব করে তারই মতো শত শত তারাভানের, যাদের অনেকেই এভাবে মরে যায়।

তারাভানের স্মৃতিচক্রের সমান্তরালে একই ঘটনাকে একজন ভিনদেশি আউটসোর্সিং পারসন মিস্টার ওয়েস্টের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে দেখা যায়। এই আকস্মিক ঘটনায় তার প্রতিক্রিয়া বিশ্বমঞ্চে যেসব চিত্র তুলে ধরে সেগুলো তারাভানরা কখনো জানে না কিংবা জানার সুযোগ পায় না।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/15/1560562366987.jpg

নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন আজাদ আবুল কালাম। তিনি বলেন, ‘নয়তলা কংক্রিট ধ্বসে পড়া আদতে লোভী, কুৎসিত কিছু অর্থান্বেষী সারমেয়র বিপরীতে কিছু মানুষের স্বপ্নের অন্তিম যাত্রার প্রতীক। আমরা অপূর্ণ সেই স্বপ্ন ধরার চেষ্টা এই নাটকে।’

‘ট্র্যাজেডি পলাশবাড়ি’র মঞ্চ ও আলোকসজ্জায় আবুল হাসনাত ভূঞা রিপন, সঙ্গীত ও শব্দ পরিকল্পনায় নীল কামরুল। কোরিওগ্রাফি করেছেন স্নাতা শাহরিন ও মো. ফরহাদ আহমেদ। পোশাক পরিকল্পনায় বিলকিস জাহান জবা।

আপনার মতামত লিখুন :

‘স্বপ্নবাজি’তে চুক্তিবদ্ধ হলেন মাহি-পিয়া

‘স্বপ্নবাজি’তে চুক্তিবদ্ধ হলেন মাহি-পিয়া
মাহিয়া মাহি ও পিয়া জান্নাতুল

তরুণ নির্মাতা রায়হান রাফির তৃতীয় সিনেমা ‘স্বপ্নবাজি’। ফ্যাশন জগতের গল্প নিয়ে নির্মিত হবে সিনেমাটি কয়েক মাস আগেই এমনটা ঘোষণা দিয়েছিলেন রাফি।

সোমবার (২২ জুলাই) ছবিটিতে অভিনয়ের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন মডেল-উপস্থাপিকা পিয়া জান্নাতুল। আজ রাতে চুক্তিবদ্ধ হবেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিচালক রায়হান রাফি।

শোনা যাচ্ছে, সিনেমাটির নায়ক হিসেবে থাকছেন সিয়াম আহমেদ। তবে এ বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কোন ঘোষণা দেওয়া হয়নি।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/23/1563891795510.jpgসিনেমাটিতে আরও দেখা যেতে পারে জয়া আহসান ও নুসরাত ইমরোজ তিশাকে। তারা দু’জন এখনও চুক্তিবদ্ধ হননি।

নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, জোড়া নায়ক–নায়িকার এই সিনেমাটির দৃশ্যধারণের কাজ শুরু হবে আগামী আগস্ট থেকে। পি এইচ এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন পিয়াল হোসাইন।

অক্ষয়ের ২০ বছর আগে দেওয়া অটোগ্রাফ

অক্ষয়ের ২০ বছর আগে দেওয়া অটোগ্রাফ
অক্ষয় কুমার

প্রিয় তারকার জন্য প্রায় সময় ভক্তরা নানা ধরনের পাগলামী করে থাকেন। এমনকি ভক্তের জন্যও অনেক সময় অনেক কিছু করতে দেখা যায় তারকাদের। এরই ধারাবাহিকতায় ২০ বছর আগে এক ভক্তের জন্য একটি উপহার পাঠিয়েছিলেন অক্ষয় কুমার।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) ২০ বছর আগে অক্ষয়ের দেওয়া সেই উপহারের একটি ছবি তুলে টুইটারে শেয়ার করেছেন আনন্দ গালান্দে নামে এক ব্যক্তি। কিন্তু কী ছিলো সেই উপহার?
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/23/1563890136135.jpgআনন্দর করা টুইটে দেখা যাচ্ছে, অক্ষয় কুমারের সাদা শার্ট পরা বুক খোলা একটি ছবি। আর সেই ছবিটির নীচে রয়েছে তার অটোগ্রাফ। এর ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, প্রিয় অক্ষয় কুমার স্যার ১৯৯৭ সালে এই উপহারটি আপনি আমাকে পাঠিয়েছিলেন। সেসময় আমি আপনাকে একটি চিঠি পাঠানোর পর আপনি উপহার হিসেবে আপনার অটোগ্রাফসহ এই ছবিটি পাঠিয়েছিলেন। আশা করছি আপনার মনে আছে।

আনন্দর এই টুইটের জবাব দিয়ে অক্ষয় কুমার টুইটারে লিখেছেন, অবশ্যই আমার মনে আছে। আশা করছি আপনি ভালো আছেন। ঈশ্বর আপনার মঙ্গল করুক।

অক্ষয় কুমার এখন ব্যস্ত রয়েছেন ‘মিশন মঙ্গল’ ছবির প্রচারণা নিয়ে। এছাড়াও তার হাতে রয়েছে ‘সূর্যবংশী’ ও ‘গুড নিউজ’ ছবি দুটির কাজ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র