Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

ক্যামেরা থেমে যাওয়ার ৮ বছর আজ

ক্যামেরা থেমে যাওয়ার ৮ বছর আজ
তারেক মাসুদ
বিনোদন ডেস্ক
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

‘কাগজের ফুল’ সিনেমার কাজ আজও শেষ হয়নি। শেষ হয়নি বাংলার সিনেমার এক আকাশ পরিমাণ শুন্যস্থান।

আজকের দিনে পাবনার ইছামতী নদীর তীরে ‘কাগজের ফুল’ সিনেমার লোকেশন দেখে মানিকগঞ্জ থেকে ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিভে যায় বাংলা চলচ্চিত্রের দুই উজ্জ্বল নক্ষত্র। বাংলা সিনেমাকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরা কিংবদন্তি পরিচালক তারেক মাসুদ ও গুণী চিত্রগ্রাহক মিশুক মুনীর।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/13/1565697470446.jpg

বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অবিস্মরণীয় এক নাম তারেক মাসুদ। ‘মুক্তির গান’, ‘মুক্তির কথা’, ‘আদম সুরত’, ‘মাটির ময়না’, ‘অন্তর্যাত্রা’ ও ‘রানওয়ে’র মতো সিনেমা নির্মাণ করে যেমন বাংলা চলচ্চিত্রে নতুন ধারার সূচনা করেছিলেন সেই সঙ্গে প্রথম বাংলাদেশি চলচ্চিত্র হিসেবে অস্কারে স্থান পেয়েছিল তার সিনেমা ‘মাটির ময়না’।

তারেক মাসুদ ১৯৫৭ সালে বর্তমান বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার নূরপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ থেকে ফিল্ম অ্যাপ্রিসিয়েশন কোর্স শেষ করে ১৯৮২ সালের শেষ দিকে প্রথম প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ শুরু করেন তিনি। যেটি নির্মাণ করতে তার সময় লেগেছিল প্রায় ৭ বছর। এরপর বেশকিছু ডকুমেন্টরি, অ্যানিমেশন এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন তিনি। ২০০২ সালে তার প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মাটির ময়না’ মুক্তি পায়।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/13/1565697483393.jpg

২০১১ সালে ঢাকায় ফেরার পথে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে দুপুর ১২টা ২৫ মিনিটে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে তারেক মাসুদ ও তার দীর্ঘদিনের সহকর্মী বিশিষ্ট চিত্রগ্রাহক মিশুক মুনীরসহ আরও ৩ জনের মৃত্যু হয়।

আর এই একটি দুর্ঘটনায় বাংলা সিনেমা থমকে যায় কয়েক যুগ, আশার আলো দেখতে থাকা বাংলা সিনেমা অন্ধকার দেখতে থাকে কয়েক বসন্ত।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/13/1565697495091.jpg

আপনার মতামত লিখুন :

নোবলের বুক ফাটে তবুও মুখ ফোটে না

নোবলের বুক ফাটে তবুও মুখ ফোটে না
মাঈনুল আহসান নোবেল

 

যতটা না আলোচনায় এসেছেন তার চেয়ে যেন বেশি সমালোচনায় মাঈনুল আহসান নোবেল। জাতীয় সংগীত বিতর্কের পর এবার নোবেল আলোচনায় কথিত প্রেমিকা কর্তৃক নিজের নগ্ন ছবি ফাঁস হওয়াকে কেন্দ্র করে।

১৩ আগস্ট সন্ধ্যায় প্রেমিকা দাবি করে শাহরিন সুলতানা নামের এক ফেসবুক আইডি থেকে নোবেলের কিছু নগ্ন ছবি দিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়। যেখানে নোবেলকে মাদকসেবী, নারীলোভী আখ্যা দিয়ে ওই নারী অভিযোগ তোলেন নোবেলের সঙ্গে তার প্রেম ও শারীরিক সম্পর্কের নামে প্রতারণার।

স্ট্যাটাস দেওয়ার কিছু সময় পর ওই নারীর ফেসবুক আইডি খুঁজে না পাওয়া গেলেও দ্রুত সময়ের মধ্যেই সেই স্ট্যাটাস ও নোবেলের নগ্ন ছবিগুলো ভাইরাল হয়ে যায় ইন্টারনেট দুনিয়ায়।

এরপর থেকে আবার নতুন করে আলোচনা সমালোচনায় নোবেল। সমালোচনা এতটাই যে বাংলাদেশে গণমাধ্যমের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদও প্রকাশ করেছে ওই স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে। যদিও রহস্যজনক ঐ ফেসবুক আইডির সম্পর্কে ওই স্ট্যাটাস ছাড়া কোন তথ্যই পাওয়া যায়নি এখনো পর্যন্ত।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566111116204.jpg

এদিকে ভারতীয় গণমাধ্যম কোন তথ্য প্রমাণ ছাড়াই নোবেলের চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তোলার পরই নোবেল ভক্তরা তার প্রতিবাদ করতে শুরু করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নোবেল ভক্তদের দাবি, নোবেলের জনপ্রিয়তাকে শেষ করতে একটি মহল পর্দার পিছন থেকে এমন কাজ করেছে। আর নোবেলের ছবিগুলো ফটোশপের কারসাজি বলে দাবিও করছেন তারা।

নোবেলের ভাইরাল হওয়া সেই ছবিগুলো বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমের কাছে সংরক্ষিত থাকলেও প্রকাশ অনুপযোগী হওয়ায় সেগুলো প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে শাহরিন সুলতানা নামের ওই ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করা ৮ টি ছবির দুইটি ছবি নোবেলের বেড রুমের বলে দাবি করেছে ওই নারী। এছাড়া নগ্ন ছবিতে নোবলকে ঘুমন্ত অবস্থায় দেখা গেছে। তবে নোবেলের নগ্ন সেই ছবি ফটোশপের কারসাজি সেটাও নিশ্চিত করা যায়নি।

যাকে নিয়ে সপ্তাহ জুড়ে এত আলোচনা সেই মাঈনুল আহসান নোবেল কি বলছেন ভাইরাল হওয়া ছবিগুলো নিয়ে। এমন প্রশ্ন নিয়ে নোবলের সঙ্গে ১৩ আগস্ট থেকে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে যাচ্ছে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম। তবে এ ব্যাপারে নোবলের বুক ফাটে তবুও মুখ ফোটে না এমন অবস্থা। নোবেলের মোবাইল নাম্বার ও ফেসবুকে কয়েক দফায় যোগাযোগ করা হলেও এই বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি নন নোবেল।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566111143507.jpg

বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম এ প্রসঙ্গে কথা বলতে নোবেলের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্রের সঙ্গেও যোগাযোগ করে। ঘনিষ্ঠ সূত্রের দাবি, নোবেল এই ব্যাপারে মিডিয়াতে কথা বলে কোন ভাবেই আগ্রহী নন, তবে এমন সে কাণ্ডে হতাশ ও বিব্রত। সে মনে করছে চুপচাপ থাকলে বিষয়টা নিয়ে আস্তে আস্তে আলোচনা কমে আসবে।

অভিযোগ আছে নগ্ন ছবি ফাঁস হওয়ার পর সমালোচনায় প্রায় ১০ ঘণ্টার মত দেশে বন্ধ রাখা হয়েছিল নোবেলের প্রায় ১০ লাখ ফলোয়ার সমৃদ্ধ নোবেলের ফেসবুক পেজ নোবেল ম্যান। তবে সেই পেজটি এখন সচল আছে এবং ১৬ আগস্ট গভীর রাতে নিজের কাজের খবর জানিয়েছেন নোবেল।

তবে নিজের সম্পর্কে এমন ভয়াবহ অভিযোগের উঠার পরও নোবেলের নীরবতায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন শোবিজের মানুষরা। তারা মনে করেন নোবেল যদি নির্দোষ বা কোন ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে থাকে তবে তার এই প্রসঙ্গে পরিষ্কার বক্তব্য নেওয়া উচিত। নোবেলের এই নীরবতায় ঘটনার সত্যতা নিয়ে বিস্ময় বাড়ানো ছাড়া আর কিছুই হবে না।

নিরবের নতুন সিনেমা ‘বসন্ত বিকেল’

নিরবের নতুন সিনেমা ‘বসন্ত বিকেল’
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

চিত্রনায়ক নিরব হোসেন গত ২৬ জুলাই বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানিয়েছিলেন শিগগিরই নতুন সিনেমার খবর দেবেন তিনি। আজ (১৭ আগস্ট) সেই নতুন সিনেমার খবর জানা গেল।

সিনেমার নাম ‘বসন্ত বিকেল’। এটি পরিচালনা করবেন রফিক শিকদার। এর মধ্য দিয়ে তৃতীয়বার জুটি বাঁধতে যাচ্ছেন রফিক শিকদার ও নিবর।

বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার খবর নিশ্চিত করে নিরব বলেন, “সংখ্যালঘু তিনটি মানুষের স্বপ্ন, হতাশা, হাহাকারের গল্প নিয়ে তৈরি হবে ‘বসন্ত বিকেল’। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে শুরু হবে এর শুটিং।”
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566048617758.jpg

আরবিএস টেক লিমিটেডের ব্যানারে নির্মিতব্য সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন শামসুজ্জামান রিমন। এতে নায়ক হিসেবে নিরব চূড়ান্ত হলেও নায়িকা ও অন্যান্য কলাকুশলী ঠিক হয়নি বলে জানা গেছে।

এর আগে নিবর রফিক শিকদারের পরিচালনায় ২০১৫ সালে ‘ভোলা তো যায় না তারে’ সিনেমায় অভিনয় করেছিল। এছাড়া এই জুটির আসছে দুর্গা পূজায় মুক্তি পাবে ‘হৃদয় জুড়ে’।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র