‘জনগণকে অসম্মান করে বিএনপি‘র ‘নালিশ’ করা সংকীর্ণ মানসিকতা’

স্টাফ করেসপন্ডেট, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪৩.কম
ওবায়দুল কাদের, ছবি: সৈয়দ মেহেদী হাসান

ওবায়দুল কাদের, ছবি: সৈয়দ মেহেদী হাসান

  • Font increase
  • Font Decrease

 

দেশের জনগণকে অসম্মান করে বিদেশীদের কাছে নালিশ বিএনপির সংকীর্ণ মানসিকতা পরিচয় দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিদেশীদের কাছে নালিশ করে দেশ ও জনগণকে অসম্মানের করার বিষয়ে জনগণের বিবেক  আদালতে পাল্টা নালিশ করেছেন তিনিও।

শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে আয়োজিত  আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির ওয়েব সাইটের  উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার স্বপ্ন নেক্সট জেনারেশন; এদের (বিএনপি) স্বপ্ন নেক্সট ইলেকশন; ক্ষমতা ছাড়া এরা কিছুই বুঝে না। বিএনপি নামক দলটি আর তার দোসররা ক্ষমতা কেন্দ্রিক রাজনীতি করে।

দেশের গণতন্ত্র নিয়ে জনগণের কাছে নালিশ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন,‘আপনারা বাংলাদেশের রাজনীতিবিদ; দেশের গণতন্ত্র নিয়ে আপনাদের কোন নালিশ থাকলে আপনার জনগণের কাছে নালিশ করুন। ভোট দিবে জনগণ; বিদেশীরা কি ক্ষমতায় বসাবে? কোন বিদেশী শক্তি ক্ষমতায় বসাতে পারবে না।’

এরপর তিনি বলেন, ‘জনগণের প্রতি আস্থা থাকলে বিদেশী গিয়ে নালিশ করে দেশকে ছোট করার মতো ছোট মানসিকতার পরিচয় দিতে পারতেন না। এতা সংকীর্ণ চিত্ত একটা রাজনৈতিক দলের কি করে হয়?

দেশের পরিস্থিতি নিয়ে বিএনপি‘র কাছে প্রশ্ন রেখে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন,  ‘এদেশ কি জিম্বাবুয়ে, এই দেশ কি ইয়েমেন, এই দেশ কি আফগানিস্তান; এই দেশকি সোমালিয়া, এই দেশ কি সুদান, এই দেশে কি কঙ্গো, এই দেশকি সিরিয়ার মতো যুদ্ধ বিধ্বস্ত যে, এই দেশকে নিয়ে নালিশ করতে হবে? দেশকে ছোট করতে হবে? এর মাধ্যমে দেশের জনগণকে অসম্মান করা হচ্ছে বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘আমি আবারও জনগণের বিবেক আদালতে এইসব বিষয়ে আমিও নালিশ করছি। আমি নালিশ করছি; আমার দেশের জনগণের বিবেকের আদালতে।

এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যানর অধ্যাপক ড. মো. হোসেন মনসুর, উপ-কমিটির সদস্যসচিব ও আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর, উপ-কমিটির সদস্য অধ্যাপক মুহাম্মদ মাহ্ফুজুল ইসলাম প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :