Alexa

ক্ষমতার বাইরে থাকা নেতারা একমঞ্চে উঠছেন দুপুরে

ক্ষমতার বাইরে থাকা নেতারা একমঞ্চে উঠছেন দুপুরে

আজও এভাবে একমঞ্চে দেখা যেতে পারে ক্ষমতার বাইরে থাকা জাতীয় নেতাদের, ফাইল ছবি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবি আদায়ের লক্ষে যুগপৎ আন্দোলনে একমত হয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অধীন ১৪ দলীয় মহাজোটের বাইরে থাকা অধিকাংশ রাজনৈতিক দল।

এর অগ্রভাগে রয়েছেন বিকল্প ধারার সভাপতি, সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট ও গণ ফোরাম সভাপতি ড. কামালের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া।

শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে ‘নাগরিক সমাবেশ’ আহবান করেছে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া।

জানা গেছে, এই সমাবেশে যোগ দিবে বিএনপি, ২০ দলীয় জোটের নিবন্ধিত সব দল, বিকল্প ধারা, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি), নাগরিক ঐক্য ও বিভিন্ন বাম সংগঠনের শীর্ষ নেতারা।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহবায়ক ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও যুক্তফন্টের চেয়ারম্যান একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

সমাবেশে আরও উপস্থিত থাকবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের নেতৃত্বে দলের শীর্ষস্থানীয় কয়েকজন নেতাসহ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সভাপতি আ স ম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার অন্যতম শরিক গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।

সমাবেশ থেকে সকল রাজনৈতিক দলের নেতা, বুদ্ধিজীবী ও বিশিষ্ট নাগরিক সমাজের ব্যক্তিবর্গ যেসব পরামর্শ দেবে তার ওপর ভিত্তি করে এগিয়ে নেওয়া হবে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়াকে।

এ সমাবেশের মূল লক্ষ্য কার্যকর গণতন্ত্র, নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা।

সম্প্রতি নাগরিকের ভোটাধিকার নিশ্চিতে নিরপেক্ষ নির্বাচন ও কল্যাণমূলক রাষ্ট্র বিনির্মানের প্রত্যয়ে ৫ দফা দাবি ও ৯ দফা লক্ষ্য ঘোষণা করেছে যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া। যে উদ্দ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও প্রধান বিরোধী দল বিএনপিসহ নাগরিক সমাজ।

আপনার মতামত লিখুন :

রাজনীতি এর আরও খবর