এলিটের আদর্শিক সমর্থনে চট্টগ্রাম আ’লীগের শীর্ষ দুই নেতা

রেজা-উদ্-দৌলাহ প্রধান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
(বাম থেকে) মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, নিয়াজ মোরশেদ এলিট ও আ জ ম নাছির উদ্দিন / ছবি: সংগৃহীত

(বাম থেকে) মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, নিয়াজ মোরশেদ এলিট ও আ জ ম নাছির উদ্দিন / ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মো. মনিরুল ইসলাম ইউসুফ ও নিয়াজ মোরশেদ এলিট। সম্পর্কে বাবা-ছেলে। দুজনেই রাজনীতিবিদ। তবে বাবা বিএনপি আর ছেলে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। চট্টগ্রাম-১ আসনে মনিরুল ইসলাম বিএনপি থেকে মনোনয়ন পাওয়ার পর এলিট জাতীয় নির্বাচনে পিতাকে ভোট না দিতে ভোটারদের কাছে আহ্বান জানিয়ে আলোচনায় আসেন।

এদিকে এলিটের আদর্শিক অবস্থানকে সমর্থন জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) নিজ বাসায় দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আদর্শের প্রশ্নে পিতা-মাতা বড় কথা নয়, নীতি হচ্ছে বড় কথা। এলিট যেটা করেছে, যেটা বলেছে বাংলাদেশে সেটা বাস্তব সত্য। এলিট বুঝতে পেরেছে বাঙালি জাতীয়তাবাদ কী? মুক্তিযুদ্ধ কী? মুক্তিযুদ্ধের চেতনা কী? তাই জনগণ কী চায় সেটা বুঝতে পেরেছে তাই তিনি বলেছেন আমার পিতাকে আপনারা ভোট দেবেন না। নীতির প্রশ্নে সে আপোষ করে নাই।’

নগর ভবনে দেওয়া অপর এক সাক্ষাৎকারে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন, ‘রক্তের সম্পর্কটা মুখ্য বিষয় নয়। মুখ্য বিষয় হল যে, নীতি-নৈতিকতা ও আদর্শের বিষয়টা। আদর্শের প্রশ্নে কোনো ছাড় নেই। আমরা ভাইকে,আমার বোনকে, আমার মাকে,আমার আব্বাকে পারিবারিক বিষয়ে আব্বা আম্মা সর্বোচ্চ সম্মান করি। কিন্তু নীতি আদর্শের প্রশ্নে এখানে কোনোভাবে ছাড় দেব না। আমি যে আদর্শ ধারণ করি, আমার আদর্শর প্রতি অবশ্যই আমাকে অবিচল থাকতে হবে। এবং আদর্শর প্রশ্নে প্রয়োজনে জীবন দিতেও দ্বিধা করব না।’

তিনি আরো বলেন, ‘এলিটকে স্কুল জীবন থেকেই দেখছি। তখন থেকেই সে আমার কাছে আসত, আমাকে ভালোবাসতে গিয়েই সে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হয়েছে। পাশাপাশি এখনো সে আছে। দলের প্রতি তার যথেষ্ট কমিটমেন্ট আছে এবং আদর্শের প্রতি। এটাকে পিতা-পুত্র হিসেবে দেখার সুযোগ নেই।’

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের দুই শীর্ষ নেতার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বার্ত২৪কে বলেন, ‘দলের নীতি নির্ধারকদের কাছে আমি আমার আদর্শিক অবস্থানটা পরিষ্কার করতে পেরেছি, এটা একটা মানসিক শান্তির জায়গা। আমি চাই আগামী নির্বাচনে সবাই নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাবে।’

উল্লেখ্য, ২৮ ডিসেম্বর এক ভিডিও বার্তায় এলিট বলেছিলেন, ‘আমি নিয়াজ মোর্শেদ এলিট। কিছু কথা বলার জন্য আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। আমার বাবা মনিরুল ইসলাম ইউসুফ একাদশ সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১ আসন থেকে বিএনপি’র মনোনয়ন পেয়েছেন। আমি একমাত্র ছেলে হিসেবে আপনাদেরকে বলছি, আমার বাবাকে আপনারা ভোট দেবেন না। আমি আবারও বলছি, আপনারা আমার বাবাকে ভোট দেবেন না। আমি কেন বলছি সেটা আমি একটু আপনাদের সঙ্গে বিস্তারিত শেয়ার করি।’

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর