ব্যর্থ ফখরুলের লজ্জা থাকলে পদত্যাগ করত: কাদের

ছবি: বার্তা২৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বেপরোয়া চালক আখ্যা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়,  এত কিছুর পর লজ্জা-শরম থাকলে আরও আগে পদত্যাগ করত।

বুধবার (১৬ জানুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের একসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল আলমগীর এক অনুষ্ঠানে বলেছেন, নির্বাচনে কারচুপির কারণে স্টেডিয়ামে দাঁড়িয়ে ওবায়দুল কাদেরকে জাতির সামনে ক্ষমা চাইতে হবে।

মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় কাদের বলেন, 'বেপরোয়া চালক যে কোনো সময় যে কোনো দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে।  বিএনপির সব বেপরোয়া চালক হয়ে গেছে। সবাইকে সাবধান থাকতে হবে। ১০ বছর পর নির্বাচন, সেই নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে ১০ টির কম আসন পায়। আন্দোলনে ব্যর্থতা, আন্দোলনে ক্ষমাহীন ব্যর্থতা, নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়, লজ্জা শরম থাকলে আরও আগে পদত্যাগ করা উচিত ছিলো তার।'

তিনি বলেন, জনগণের রায়ের বিজয়কে যারা প্রত্যাখান করে তাদের ক্ষমা চাওয়া উচিত জাতির কাছে। ইলেকশন যদি কারচুপি হতো আপনি জিতলেন কেমনে। এটার জবাব দিন।'

টিআইবির অভিযোগকে অলীক রহস্যময় কাহিনী  উল্লেখ করে তিনি বলেন, টিআইবিকে বলবো- গল্প খাওয়াচ্ছেন, অনেক অবিশ্বাস্য রূপকথার কাহিনী সাজাচ্ছেন- নির্বাচন নিরপেক্ষ হয়নি বলে। স্বচ্ছ ব্যালট বক্স ব্যবহার করা হয়েছে। আপনাদের একজন প্রতিনিধি বা প্রতিপক্ষের এজেন্ট নির্বাচনী কেন্দ্রে কি চ্যালেঞ্জ করেছেন? এই নির্বাচনের স্বচ্ছতা নিয়ে। নির্বাচনের দিন সকাল ৮টায় যখন ব্যালট বক্স পরীক্ষা করে- তখন কি প্রতিবাদ করেছে টিআইবির কোনো প্রতিনিধি? স্বচ্ছতার বিরুদ্ধে কথা বলছে? তখন বলেনি- বলার কারণ খুঁজে পাননি। এতোদিন বলেনি এখন কেন এই অলীক রূপকথার কাহিনী সাজাচ্ছেন?’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুবলীগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ঈসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট।

রাজনীতি এর আরও খবর