খালেদা জিয়ার মাথায় ঘিলু নেই: প্রধানমন্ত্রী

সেন্ট্রাল ডেস্ক ৪

  • Font increase
  • Font Decrease
বেগম জিয়া সজ্ঞানে না থাকার কারণেই পদ্মাসেতু জোড়াতালি দিয়ে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকেলে গণভবনে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়নে কাজ করে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সঠিক জ্ঞান না থাকায় খালেদা জিয়া পদ্মা সেতু নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, ‘সরকারে এসেছি নিজের ভাগ্য গড়তে না। জনগণের ভাগ্য গড়তে, জনগণের ভাগ্যে পরিবর্তন আনতে। আজকে যখন আমরা নিজেদের অর্থায়নে পদ্মাসেতু গড়ি, তখন আপনারা শুনেছেন, খালেদা জিয়া বক্তৃতা দেয়- ওই পদ্মাসেতু জোড়াতালি দিয়ে করা হয়েছে, কেউ পদ্মাসেতুতে উঠবেন না। একটা সেতু কীভাবে, কী পদ্ধতিতে নির্মাণ করতে হবে, ওইটুকু বোঝার মতো ঘিলু নাই। উনার মাথায় যে ঘিলু আছে সেটা কিসের? চুরি করার, টাকা বানানোর, এতিমের টাকা খাওয়ার, মানুষ পোড়ানো, মানুষ মারা- এটাই পারেন।’ দেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা রাখা ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠাবাষির্কী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার গণভবনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী অতীতে ছাত্রলীগের গৌরবজ্জ্বল ভূমিকার কথা উল্লেখ করে আগামী দিনেও দেশকে এগিয়ে নিতে নেতা-কর্মীদের আহ্বান জানান। এ সময় তিনি বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজনীতি করার সুযোগ দিয়েছেন। এতে দেশের স্বাধীনতা ধ্বংস হয়েছে। যথাযথ শিক্ষা নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের দেশ গড়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘অনেকেই বলে থাকে, জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র দিয়েছেন। কিন্তু জিয়াউর রহমানের গণতন্ত্র ছিলো কারফিউ গণতন্ত্র। কারণ প্রতিরাতে থাকতো কারফিউ। মানুষেল স্বাধীনভাবে চলার কোনো সুযোগ ছিলো না। আর বহুদল মানে, ঐ যে রাজাকার-আলবদর, যাদের  রাজনীতি থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিলো সংবিধানের ১২ অনুচ্ছেদে, সেই ১২ অনুচ্ছেদ বিলুপ্ত করে তাদের রাজনীতিতে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হয়।’ তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের যতোগুলো অর্জন, সব অর্জনের পেছনেই রয়েছে ছাত্রলীগের আত্মত্যাগ। শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। শিক্ষার আলোকবর্তিকা হাতে নিয়ে শান্তির পথে, প্রগতির দিকে এগিয়ে যেতে হবে। ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।’ আগামীতে দেশ গড়ার অগ্রযাত্রায় ছাত্রলীগকে অতীতের মতো ভূমিকার রাখার আহ্বান জানার প্রধানমন্ত্রী।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর