Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

English

এই সরকারের আমলে নিরাপত্তা নাই: ফখরুল

এই সরকারের আমলে নিরাপত্তা নাই: ফখরুল
দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত আ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনের পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা জানান বিএনপি নেতৃবৃন্দ, ছবি: বার্তা২৪.কম
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বগুড়া
বার্তা২৪.কম।


  • Font increase
  • Font Decrease

বগুড়ায় বিএনপি নেতা শাহীন হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি আজ প্রকাশিত হয়েছে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘এই সরকারের আমলে কোনো মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নাই, কোনো জবাবদিহিতা নাই, কোনো বিচার নাই।’

দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাতের পর বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘শাহীন হত্যার ঘটনায় শুধু বগুড়ায় নয়, সারাদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। নিহত শাহীনের কোনো শত্রু ছিল না। শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ কারণে  বগুড়াবাসী আজ ক্ষুব্ধ। পুলিশ প্রশাসন শাহীনের খুনীদের গ্রেফতারে ব্যর্থ হলে বগুড়াবাসী বসে থাকবে না বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঢাকা থেকে বগুড়ায় আসেন। তিনি শহরের ধরমপুরে নিহত শাহীনের বাসভবনে যান। সেখানে তিনি নিহত শাহীনের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী, দুই ছেলে সায়েম, সিয়াম এবং মেয়ে সুজনাকে ও পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা দেন।

এ সময় তিনি বলেন, ‘শাহীন একজন জনপ্রিয় নেতা ছিলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে শাহীন হত্যার বিষয়টি জানানো হয়েছে। তিনি শুনে অত্যন্ত মর্মাহত হয়েছেন। নিহত পরিবারের প্রতি তিনি সমবেদনা জানিয়েছেন ‘

 এসময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নিহত পরিবারের প্রতি শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে বলেন, ‘বিএনপি আপনাদের সঙ্গে আছে। হত্যাকান্ডের বিচার না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি সব ধরণের সহযোগিতা করে যাবে।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আ্যডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন,  বগুড়া পৌর মেয়র আ্যডভোকেট মাহবুবর রহমান, সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন প্রমুখ। ।

নিহতের পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানানোর পর বিএনপি নেতৃবৃন্দ নিহত শাহীনের কবর জিয়ারত করেন। পরে মির্জা ফখরুল বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাবেক সংসদ সদস্য হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুকে দেখতে যান।

 

আপনার মতামত লিখুন :

বিএনপি'র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা

বিএনপি'র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা
বক্তব্য রাখছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

পহেলা সেপ্টেম্বর দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। কর্মসূচিগুলোর মধ্যে রয়েছে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, র‍্যালি, আলোচনা সভা ও দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও ফাতিহা পাঠ।

সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে বিএনপির এক যৌথসভা শেষে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

১ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। এরপর সকাল ১০টায় বিএনপি’র কেন্দ্রীয় ও সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের নিয়ে শেরেবাংলা নগরস্থ সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করা হবে। দোয়া ও মোনাজাত শেষে র‌্যালির আয়োজন করা হবে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ২ সেপ্টেম্বর আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পোস্টার ও ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে

রাজধানী ঢাকা ছাড়াও সারাদেশে বিএনপি তাদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। পহেলা সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী বিএনপি’র সকল ইউনিট সকাল ৬টায় দলীয় কার্যালয়গুলোতে দলীয় পতাকা উত্তোলন করবে। স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা তাদের সুবিধানুযায়ী দলের জেলা ও মহানগরের বিভিন্ন পর্যায়ের ইউনিটগুলো দিবসটি উপলক্ষে কর্মসূচি গ্রহণ করবে। ঢাকার মতো সারাদেশেও র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করতে বলা হয়েছে।

দুপুরে আয়োজিত যৌথ সভায় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন-নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, মাহবুবের রহমান শামিম, বিলকিস জাহান শিরিন, সৈয়দ ইমরান সালেহ প্রিন্স, ডা. সাখওয়াত হাসান জীবন. প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী. সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আব্দুস সালাম প্রমুখ।

বিএনপি গত দেড় বছরে দেড় মিনিটও আন্দোলন করেনি: কাদের

বিএনপি গত দেড় বছরে দেড় মিনিটও আন্দোলন করেনি: কাদের
ঝিলপাড় বস্তির আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, 'গত দেড় বছরে দেড় মিনিটও রাজপথে আন্দোলন করতে পারেনি বিএনপি। আদালতে ব্যর্থ হয়ে বেগম জিয়াকে এখনো মুক্ত করতে পারেনি তারা। সকল কিছুতে ব্যর্থ হয়ে, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের কাছে গিয়ে কান্নাকাটি করে নালিশ করছে। এখন নাকি তারা আবার জাতিসংঘেও ধরনা দেবে।'

সোমবার (১৮ আগস্ট) দুপুর ২টার দিকে মিরপুরের ঝিলপাড় বস্তির আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'বিএনপি আদালত ও রাজপথের আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে। একই সঙ্গে দেশের জনগণের সমর্থন লাভেও ব্যর্থ হয়ে এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দেওয়া ছাড়া তাদের আর কোনো অবলম্বন নেই।'

মির্জা ফখরুলকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল দেখতে এসে রিলিফ দেওয়ার নামে মির্জা ফখরুল আমাদের সরকার ও স্থানীয় সংসদ সদস্যদের নামে বিষোদগার করে গেছেন। জনগণ বড় বড় বক্তৃতা শুনতে চায় না, আশ্বাসও শুনতে চাই না, চাই সহযোগিতা। আপনারা কোনো ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করেননি। শুধু এসে বক্তৃতা করে গেছেন।'

সেতুমন্ত্রী বস্তিবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেন, 'আমি আপনাদেরকে আশ্বস্ত করছি, আমরা এই ক্ষতিগ্রস্ত বস্তিবাসীর পাশে আছি। যতদিন পর্যন্ত না পুনরায় আপনাদের পুনর্বাসন করা না যায়। ততদিন পর্যন্ত আমরা আপনাদের ত্রাণ সহ সকল ধরনের সহযোগিতা করব। আপনারা নিজেদের অসহায় ভাববেন না। শেখ হাসিনার সরকার সব সময় আপনাদের পাশে আছে।'

এবারের ঈদযাত্রায় দুর্ঘটনার বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বলেন, 'ঈদের সময় বেশ কিছু কারণে সড়কে দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। পরিবহনের পাশাপাশি বাড়তি ভাড়ার আশায় ছোট ছোট গাড়িগুলো সড়কে নেমে পড়ে। এছাড়া পরিবহনগুলো বেশি টাকার জন্য অনেক সময় বাড়তি টিপস নেয়, ফলে অনেক সময় সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। তবে মহাসড়কে ছোট ছোট গাড়িগুলোর জন্য যেমন দুর্ঘটনা ঘটে, একই সঙ্গে মৃত্যুর হারও বেড়ে যায়। আমরা দু একদিনের মধ্যেই বসব এবং কী কারণে এবার সড়কে দুর্ঘটনা ঘটেছে এসব বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হবে।'

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র