Alexa

ঐক্যবদ্ধ থাকলে অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়: ড. কামাল

ঐক্যবদ্ধ থাকলে অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়: ড. কামাল

সভায় বক্তব্য দেন ড. কামাল হোসেন / ছবি: বার্তা২৪

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা এবং গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ‘ঐক্যবদ্ধ থাকলে অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়, এটা আমরা বার বার প্রমাণ করেছি। আমরা যখনই একটা লক্ষ্য নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি, তখনই জয়ী হয়েছি। স্বাধীনতার ফসল সকলের ঘরে ঘরে পৌঁছাতে জনগণের ঐক্য অপরিহার্য।’

শনিবার (২৫ মে) সুপ্রিমকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের মিলনায়তনে ‘মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন বাস্তবায়নে, মুক্তির লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হোন, কল্যাণ রাষ্ট্র গড়ে তুলুন’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। নাগরিক ঐক্য এ সভার আয়োজন করে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। সংবিধানকে সমুন্নত রাখতে হবে, সংবিধান দেশের মৌলিক আইন, সংবিধানকে যদি আমরা সমর্থন করি তাহলে এটাকে সমুন্নত রাখতে আমরা বাধ্য। গণতন্ত্রের পক্ষেও আমরা একটা ঐক্য বজায় রাখব। ঐক্যবদ্ধ শক্তিকে নিয়েই দেশে আমরা প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে পারব।’

তিনি বলেন, 'ইতিহাস বলে বাংলাদেশের এমন কোনো সমস্যা নাই যে জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে সমাধান করা যায় নাই। আমরা অনেক কঠিন সময় দেখেছি। স্বাধীনতা অর্জনের মধ্য দিয়ে আমরা অসম্ভবকে সম্ভব করেছি। দেশ স্বাধীন করতে পেরেছি। আমাদের লক্ষ্য, সংবিধান অনুযায়ী দেশ শাসন হোক, গণতন্ত্র থাকুক। এটা আমরা সবাই চাই। স্বাধীনতা রক্ষা করতে হলে, স্বাধীনতার ফসল সকলের ঘরে ঘরে যদি পৌঁছাতে হয়, তাহলে জনগণের ঐক্য অপরিহার্য।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/25/1558796719470.jpg

দেশের এই প্রবীণ আইনজ্ঞ ও সংবিধান প্রণেতা বলেন, ‘বহুদলীয় গণতন্ত্র হতে পারে কিছু মৌলিক বিষয়ে ঐক্যমতের ভিত্তিতে। আমাদের বিভিন্ন মত, বিভিন্ন বিষয় থাকতে পারে, কিন্তু দেশের জনগণ সকল ক্ষমতার মালিক, এটা নিয়ে দ্বিমতের কোনো অবকাশ নেই। কেননা স্বাধীনতাই থাকে না, এটা আমরা যদি না মানি। জনগণ তাদের ক্ষমতা প্রয়োগ করবে তাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের মাধ্যমে। নির্বাচনের অর্থ হবে অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন।’

তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচনের মধ্যে ত্রুটি থাকলে যারা নির্বাচিত হবে তারা জনগণের প্রতিনিধি দাবি করতে পারবে না। সেটা না করতে পারলে আমি বলবো স্বাধীন দেশের যে বৈশিষ্টা সেটাই হারিয়ে ফেলবো। স্বাধীন দেশ শাসন করবে, যারা অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্য দিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করেছে।’

উপস্থিত বিভিন্ন দলের নেতাদের উদেশ্য করে তিনি বলেন, সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকেন সংবিধানকে সমুন্নত রেখে। সংবিধানের প্রতিশ্রুতি, নির্ভেজাল গণতন্ত্র, মানুষের মৌলিক অধিকার, এ সবগুলো আমরা নিশ্চিত করবো ঐক্যবদ্ধ হয়ে।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ঢাবি আইন বিভাগের শিক্ষক আসিফ নজরুল, রাষ্ট্রবিজ্ঞানী দিলারা চৌধুরী, বিপ্লবী ওয়ার্কার পার্টি নেতা সাইফুল হক, জে এস ডি'র নেতা আব্দুল মালেক রতন, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া, বিএনপি চেয়ারপারনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আব্দুস সালাম প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :