Barta24

শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

English

সংসদে যেতে চাপের চেয়ে লোভ বেশি ছিল: গয়েশ্বর

সংসদে যেতে চাপের চেয়ে লোভ বেশি ছিল: গয়েশ্বর
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ছবি: বার্তা২৪.কম
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

দলের সংসদ সদস্যদের শপথ প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, 'পার্লামেন্টে যাওয়াতে চাপ আছে, তবে চাপের চেয়ে লোভ বেশি। এরা একটা দিনও কী বলেছে, খালেদা জিয়া মুক্ত না হলে পার্লামেন্টে যাব না। এরা পাঁচ জনের একজন বলেছে একদিন? তাহলে তাদের কাছে পার্লামেন্ট জরুরি, খালেদা জিয়ার মুক্তি জরুরি না।'

শুক্রবার (৩১ মে) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়াউর রহমানের ৩৮ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী তাঁতিদল আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, 'বিএনপি পার্লামেন্টে যাবে না, আবার পার্লামেন্টে গেলাম কেন? এখান থেকে বুঝতে হবে, আমাদের প্রতিশ্রুতির অভাব আছে। আমরা অবাধ্যকে বাধ্য করতে পারি না। কারণ তাদের দলের প্রতি রাজনীতির প্রতি কোনো প্রতিশ্রুতি নাই। এই পাঁচটা লোককে আমরা যদি বাধ্য করতে পারতাম তাহলে আজকে আপনাদের এই দুঃখটা থাকত না। মানুষের কাছেও আজকে জবাব দিতে হত না।'

বিএনপি নেতা বলেন, 'ভোট যদি রাতের আধারে চলে যায়, সবারই বদনাম হয়। সামাজিক ক্ষেত্রেও অনেক অন্যায় আবদার মেনে নিতে হয়। এখন এই পাঁচজন যদি দল ছেড়ে চলে যেত। সেই কারণেই আমাদের প্রেক্ষাপটও বুঝতে হবে, বর্তমান অবস্থাটাও বুঝতে হবে।'

তিনি বলেন, 'আইন আছে, আইনের প্রয়োগ নাই। বিচার বিভাগ যদি স্বাধীন হত বিবেক তাড়িত হত খালেদা জিয়া ১৪ মাস না ১৪ দিনেও জেলে রাখতে পারত না। আমি ধরে নিলাম ওনার সাজা হয়েছে। এরকম সাজাপ্রাপ্ত লোকের সংখ্যা বাংলাদেশে শতশত হাজার হাজার। তারা জামিনে মুক্ত, কিন্তু খালেদা জিয়ার জামিন হচ্ছে না কেন?'

গয়েস্বর বলেন, 'সম্প্রতি লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, তারেককে বেশি বাড়াবাড়ি করতে না বল, তাহলে কিন্তু তার মাকে আর ছাড়ব না। তার মানে ছাড়ার মালিক শেখ হাসিনা। এটা কি আদালত অবমাননা না? আদালত কি শেখ হাসিনাকে ডাকছে, জিজ্ঞেস করেছে।'

জাতীয়তাবাদী তাঁতিদলের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, বিএনপির সহ শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া প্রমুখ।

 

আপনার মতামত লিখুন :

শুভ শক্তির উত্থান ঘটাতে হবে: ফখরুল

শুভ শক্তির উত্থান ঘটাতে হবে: ফখরুল
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, পুরনো ছবি

জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু ধর্মের সকল মানুষকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, ‘ভগবান শ্রীকৃষ্ণ পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়ে জনসমাজে বিরাজমান অন্যায়কে পরাস্ত করে শান্তি ও কল্যাণ স্থাপন করেন। বাংলাদেশেও অশুভ শক্তিকে পরাভূত করে গণতন্ত্রের শুভ শক্তির উত্থান ঘটাতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদের আরাধ্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিন, শুভ জন্মাষ্টমী অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। সকল ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসবের মূলবাণী, মানুষে-মানুষে সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য ও শুভেচ্ছাবোধ। সকল কালে, যুগে বিভিন্ন ধর্মের প্রবক্তাগণ মানুষকে সত্য, ন্যায় ও কল্যানের পথে চালিত হওয়ার উপদেশ দিয়েছেন। ভগবান শ্রীকৃষ্ণও একই উদ্দেশ্যে পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়ে জনসমাজে বিরাজমান অন্যায়কে পরাস্ত করে শান্তি ও কল্যাণ স্থাপন করেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ ঐতিহ্যগতভাবে ধর্মীয় সম্প্রীতির দেশ হিসেবে সকল ধর্মের মানুষের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে বিশ্বাসী।’

‘আরও অনেক বিচারপতি দুর্নীতিতে জড়িত’

‘আরও অনেক বিচারপতি দুর্নীতিতে জড়িত’
ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, ছবি: সংগৃহীত

কেবল তিন বিচারপতিই নন, আরও অনেক বিচারপতির বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

তিনি বলেছেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। যা বিষয়টি প্রধান বিচারপতিকে অবহিত করেছি।’

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ সফিউর রহমান মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

আরও পড়ুন: ছুটিতে তিন বিচারপতি

মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রকাশ্যে দুর্নীতি করেন। আইনজীবীরা তাদের কাছে প্রতিদিন হয়রানির শিকার হচ্ছেন। বিচারপ্রার্থীদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত ও বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি রক্ষায় পদক্ষেপ গ্রহণ জরুরি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করার বিষয়টিকে স্বাগত জানাই। তবে এ তদন্ত কারা করছে, তা স্পষ্ট করারও দাবি জানাচ্ছি।’

আরও পড়ুন: হাইকোর্টের ৩ বিচারপতিকে বেঞ্চ দেওয়া হয়নি

বিচারপতিদের অসদাচারণের অভিযোগ তদন্তে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল আবারও পুনরুজ্জীবিত হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের পর সুপ্রিম জুডিসিয়াল কাউন্সিল আবারও পুনরুজ্জীবিত হয়েছে। এখন এটির কার্যক্রম কি অবস্থায় রয়েছে আমরা জানি না। তাই এটি স্পষ্ট করা দরকার।’

নবম সংসদ বহাল থাকা অবস্থায় দশম সংসদের সদস্যদের শপথের বৈধতা রিটের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে একটি রিট করেছিলাম। কিন্তু হাইকোর্ট রিটটি সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন। এখন হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেছি। আর আপিলে ন্যায়বিচার পাওয়ার বিষয়ে আশা প্রকাশ করছি।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র