জনগণকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে: ড. কামাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ড. কামাল হোসেন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ড. কামাল হোসেন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বঙ্গবন্ধুর নাম নিয়ে জনগণকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

শনিবার (২৪ আগস্ট) জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সভার আয়োজন করে গণফোরাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কামাল হোসেন বলেন, ‘যারা বঙ্গবন্ধুর নাম নেয়, কিন্তু এদের অনেকেই কাজ করে উল্টাটা। আজকে যারা বঙ্গবন্ধুর নাম নিয়ে জনগণকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে রাখে, ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করে, এটা নিয়ে বিতর্কের কোনো অবকাশ নেই।'

তিনি বলেন, ‘জনগণ দেশের মালিক, যেটা বঙ্গবন্ধু স্বাক্ষরিত দলিলে দিয়ে গেছেন। এটা নিয়ে নেওয়ার তো কারো ক্ষমতা নাই। বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানানো, তাকে স্মরণ রাখা, উনাকে জাতির পিতার ভূমিকা রাখার অর্থই হলো- উনি যে দায়িত্ব দিয়ে গেছেন, এই দায়িত্বের কথা আমরা যেন স্মরণ করি, মনে রাখি, সংগঠিত হই। সংগঠিত হয়ে সেই দায়িত্বকে পবিত্র মনে করে আমরা কাজ করে যাই। যারা সত্যিকার অর্থেই জনগণের দ্বারা নির্বাচিত হয়নি, জনগণের স্বার্থ রক্ষা করছে না, ব্যক্তি স্বার্থ গোছাচ্ছে। আমরা কি সেটা মেনে নেব? মেনে নেওয়া একদমই সম্ভব না। বঙ্গবন্ধু মেনে নেননি বলে উনাকে জীবন দিতে হলো।’

দেশের প্রবীণ এই আইনজ্ঞ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর যে স্বপ্ন, এটাকে কেউ সাময়িকভাবে ক্ষমতা বা টাকা-পয়সা দিয়ে বাধা সৃষ্টি করতে পারে, উনার নাম অপব্যবহার করতে পারে। কিন্তু সবচেয়ে বড় অপরাধ আজকে মনে করি, বঙ্গবন্ধুর নামে যে কাজটা উনি করতে বলেছেন, তার উল্টা কাজটা করে উনার নাম নেওয়া হচ্ছে। এটা আমি একদম হলফ করে বলতে পারি, এই দেশে স্বৈরশাসন থাকবে, এটা উনি কোনোদিনই ভাবতে পারেননি।’

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :