‘জোর করে কিছু করা হয়নি’

সেরাজুল ইসলাম সিরাজ, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
জিএম কাদের, ছবি: সংগৃহীত

জিএম কাদের, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিরোধী দলীয় নেতা মনোনয়ন প্রশ্নে জোর করে কিছু করা হয়নি। জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ীই চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জিএম কাদের।

বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বনানীতে পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় জাপা চেয়ারম্যান এ কথা জানান।

৩ সেপ্টেম্বর জিএম কাদেরকে বিরোধী দলের নেতা হিসেবে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য স্পিকারের কাছে চিঠি দেওয়া হয় পার্টির পক্ষ থেকে। এ বিষয়টি যথাযথ নিয়ম মেনে করা হয়নি বলে রওশনপন্থীরা অভিযোগ তুলেছেন।

পার্লামেন্টারি পার্টির বৈঠক না করার কারণেই কি বিতর্ক হচ্ছে- এমন প্রশ্নের জবাবে জিএম কাদের বলেন, ‘এরশাদ সাহেব যখন বেঁচে ছিলেন, তিনিও কিন্তু এভাবে বিরোধী দলীয় নেতা হয়েছিলেন, আমাকে বিরোধী দলীয় উপনেতা করেছিলেন। পরে আমাকে সরিয়ে রওশন এরশাদকে উপনেতা করা হয়, তখনও কিন্তু পার্লামেন্টারি পার্টির কোনো মিটিং করা হয়নি।’

i
জিএম কাদেরকে বিরোধী দলের নেতা হিসেবে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য স্পিকারের কাছে পাঠানো চিঠি

 

‘সংসদের রুলস অব প্রসিডিয়রে কি আছে বলতে পারব না। তবে আমাদের পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চিঠি দেওয়া হয়েছে। সংসদের নিয়মে যদি মিটিংয়ের প্রয়োজন পড়ে, তা করা হবে,’ যোগ করেন জিএম কাদের।

তিনি বলেন, ‘আমরা ফোনে সংসদ সদস্যদের জিজ্ঞেস করেছি। তারা সম্মতি দিয়েছেন। লিখিত দিতে বলা হলে ১৫ জন সম্মতিপত্র দিয়েছেন। ২৫ জনের মধ্যে ১৫ জন সম্মতি দিলে আর কিছু লাগে না। তাই অন্যদের বলা হয়নি। এখন আরও অনেকে সম্মতিপত্র দিতে চাচ্ছেন। প্রয়োজন নেই বলে নেওয়া হচ্ছে না।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অন্য কেউ পার্লামেন্টারি পার্টির সভা ডাকতে পারেন না। ডাকতে হলে আমিই ডাকব।’

সমালোচনা প্রসঙ্গে বলেন, ‘চাইলে অনেক কিছু নিয়ে সমালোচনা করা যায়। এ ক্ষেত্রেও কেউ কেউ সমালোচনা করার চেষ্টা করছেন। ৮ তারিখে অধিবেশন বসবে, তার আগে নেতা নির্বাচন করা দরকার। তাই চিঠি দেওয়া হয়েছে।’

কঠোর গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে ৩ সেপ্টেম্বর সংসদে চিঠি পাঠানোর পর পরই বৈঠক করেন রওশনপন্থীরা। তারা ৮ তারিখে পার্লামেন্টারি পার্টির বৈঠক ডাকার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সেখানে রওশনকে বিরোধী দল নেতা করার বিষয়ে তোড়জোড় চলছে। বুধবারও (৪ সেপ্টেম্বর) রওশনের বাসায় একাধিক সিনিয়র নেতাকে আসতে দেখা গেছে।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর