আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না: মির্জা ফখরুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
মতবিনিময় সভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

মতবিনিময় সভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, 'এরা (আওয়ামী লীগ) গণতন্ত্রকে বিশ্বাস করে না, কোনোদিন করেনি। তাই তাদেরকে আর অন্যান্য দলগুলোকে আমি কোনোদিনই এক করতে চাই না। এরা গণতন্ত্রের জন্য বড় বাধা, একটি ফ্যাসিস্ট শক্তি। আমরা যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি, জনগণের অধিকার আদায়ের জন্য কাজ করি তারা অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হব এবং ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে মোকাবিলা করব।'

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর তোপখানা রোডের শিশুকল্যাণ মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভার আয়োজন করে- নাগরিক ঐক্য। এ সময় বিএনপি সহ বেশ কয়েকটি দলের নেতারা মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, 'বাংলাদেশে বর্তমানে যে সরকার রয়েছে, তারা সম্পূর্ণরূপে জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া একটা সরকার। যে দলটির স্বাধীনতার নেতৃত্ব দিয়েছে, পরবর্তীতে তারাই গণতন্ত্র হত্যা করেছিল বাকশাল কায়েম করে। আবার বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে নিয়ে এসেছিলেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। কেউ কেউ এখনো তাকে সামরিক নেতা হিসেবে অবিহত করেন। কিন্তু উনিই এই বহুদলীয় গণতন্ত্রের সুযোগটা সৃষ্টি করে দিয়েছিলেন। আওয়ামী লীগের দ্বিতীয়বার পুঃনজন্ম হয়েছিল জিয়াউর রহমানের এই বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়েই।'

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কারাবরণের বিষয়ে তিনি বলেন, 'বাংলাদেশের গণতন্ত্রের জন্য সবচেয়ে বেশি কেউ যদি ত্যাগ শিকার করে থাকেন- তিনি হচ্ছেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। এরশাদ ক্ষমতায় যাওয়ার পর থেকে আমাদের নেত্রী দীর্ঘ ৯ বছর সংগ্রাম করে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে নিয়ে এসেছেন। আজকে ১৮ মাস সম্পূর্ণ একটি সাজানো মিথ্যা মামলায় তাকে সাজা দিয়ে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে।'

বিরোধী দলীয় সকল রাজনৈতিক দলগুলোকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, 'আসুন আমাদের মধ্যে যে ছোটখাটো মতপার্থক্যগুলো আছে সেগুলোকে পাশে রেখে, আমাদের জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার জন্য সবাই একসাথে কাজ করি।'

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- জেএসডি সভাপতি আসম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, গনসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকি, গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিক প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :