১/১১ কথা বলে পার পাওয়া যাবে না: রিজভী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

 

ঢাকা: এক এগারোর কথা বলে আর পার পাওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, এক এগারোর কুশীলব কারা? তাহলে আপনারা কে? আপনাদের আন্দোলনের ফসলইতো এক এগারো। আপনিইতো এক এগারোর প্রক্রিয়াকে মহিমান্বিত করে তা ‘পাঠশালা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছিলেন।

বুধবার (৮ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন।

'কোথায় কি হচ্ছে আমরা জানি। দেশে যখন শান্তিময় অবস্থা বিরাজ করছে ঠিক সে সময়ে ১/১১ এর কুশীলবরা আবার রাজনৈতিক অঙ্গনে নেমে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অশুভ খেলায় মেতে উঠেছে-আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যে উদ্ধৃত করে রিজভী বলেন, এক এগারো তো আপনাদের আন্দোলনের ফসল। সে ফসলের বিরুদ্ধে এখন বিরুপ মন্তব্য করছেন কেন? তারা(  ) আপনাদের এতো প্রিয় ছিল যে, তাদের সব অপরাধ ও বেআইনি কাজ বৈধ করে দেবেন বলেছিলেন এবং ক্ষমতায় এসে তা করেছেন। তাদের  পৃষ্ঠপোষকতায় এখন আপনারা ১০ বছর ক্ষমতায়।

তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেবরা শাক দিয়ে মাছ ঢাকতে পারছেন না বলেই এখন প্রলাপ বকছেন, গুজবের আশ্রয় নিয়েছেন। ক্ষমতাসীন নেতারা তাদের নিজস্ব মিডিয়া দিয়ে বিএনপির বিরুদ্ধে নোংরা অপপ্রচারে মেতে উঠেছে। ছাত্র আন্দোলনের সহিংসতায় বিএনপিকে জড়াতে তারা কুৎসিত অপকৌশলের আশ্রয় নিয়েছে।

'বিএনপি বিদেশিদের কাছে নালিশ করছে' ওবায়দুল কাদেরের এমন মন্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, উনারা যে বিদেশীদের কাছে মাঝে মাঝে নালিশ করেন তা কিসের নালিশ? আগেও তো নালিশ দিয়েছেন। আমরা দেখেছি, যখন তারা বিরোধী দলে ছিল।

রিজভী বলেন, এই সমস্ত কথা বলে কোন লাভ হবে না। এখন তাদের পায়ের তলার মাটি ভূমিকম্পের মতো সরে গেছে। যেকোনো মুহূর্তে এ সরকারের পতন আসন্ন। মানুষ সেটাই কামনা করছে। নিজের নিরাপত্তার জন্য, সন্তানের নিরাপত্তা জন্য, ভোটের নিরাপত্তার জন্য, দেশের নিরাপত্তার জন্য এ সরকারের বিদায় ঘন্টা শুনতে মানুষ অপেক্ষা করছে।

'নির্বাচনে অনিয়ম হবে না সে নিশ্চয়তা দেওয়া যায় না' সিইসির এমন মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, কেন নিশ্চয়তা দেওয়া যায় না। কারণ ওবায়দুল কাদের সাহেবরা সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশও ধ্বংস করে দিয়েছে। কাদের সাহেব আপনারা যতই ধাপ্পাবাজি করুণ না কেন, জনগনের কাছে জবাব দেওয়ার সময় হয়ে গেছে। জবাব দিতে হবে পাথর লুটের, কয়লা লুটের, ব্যাংক লুটের, শেয়ারবাজার লুটসহসহ সমস্ত আর্থিক খাত ধ্বংসের, জবাব দিতে হবে অসংখ্য গুম খুন বিচারবহির্ভূত হত্যার।

এসময় যুগ্ম মহাসচিব বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আব্দুস সালামসহ বিএনপি'র কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :