সময় বাঁচাবে ওয়ান-পট ফুলকপি ডাল

ছবি: সংগৃহীত

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল

সময় স্বল্পতার জন্য পাশ্চাত্যে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ‘ওয়ান-পট ডিশ’।

বেশ অনেকগুলো উপাদান একসাথে রান্না করে ফেলার এই প্রক্রিয়ায় অল্প সময়ের মাঝে একটি রান্নাতেই কয়েক ধরণের খাদ্য উপাদানের পুষ্টি পাওয়া সম্ভব হয়। আমাদের দেশেও ওয়ান-পট ডিশের প্রচলন দেখা দিচ্ছে। তবে তার প্রসার এখনও তেমন একটা পায়নি।

আগামীকাল থেকেই শুরু হচ্ছে আবারো কর্মব্যস্তময় দিন। কাজের মাঝে স্বাস্থ্যকর খাবার তৈরির জন্য খুব কম সময়ই পাওয়া যায়। শীতকালীন সবজি ফুলকপি দিয়ে দারুণ মজাদার ওয়ান-পট ডিশ তৈরির রেসিপিটি প্রয়োজন হবে সবার।

ওয়ান-পট ফুলকপি ডাল তৈরি করতে যা লাগবে

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/12/1547279158609.jpg

১. ৩/৪ কাপ মুগ ডাল।

২. ২ টেবিল চামচ নারিকেল তেল।

৩. ২ টেবিল চামচ ফ্রেশ আদা।

৪. ২ কোয়া ফ্রেশ আসা কুঁচি।

৫. ২টি ছোট পেঁয়াজ কুঁচি।

৬. ৫-৬টি কাঁচামরিচ ফালি।

৭. ৫ টেবিল চামচ কারি পেস্ট।

৮. ২ কাপ ফুলকপি কুঁচি।

৯. ২ কাপ নারিকেল দুধ।

১০. ১ টেবিল চামচ ম্যাপল সিরাপ।

১১. ৩-৪ কাপ শাক কুঁচি (কচু শাক হলে ভালো)।

১২. ২ টেবিল চামচ ফ্রেশ লেবুর রস।

ওয়ান-পট ফুলকপি ডাল যেভাবে তৈরি করতে হবে

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/12/1547279176152.jpg

১. একটি পানভর্তি পাত্রে মুগ ডাল দিয়ে পাত্রের মুখ বন্ধ করে এক ঘণ্টার জন্য ভিজিয়ে রাখতে হবে। সম্ভব হলে আগের দিন রাতে এভাবে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এতে ডাল দ্রুত রান্না করা সম্ভব হবে।

২. বড় একটি কড়াই মাঝারি আঁচে গরম করে এতে তেল দিয়ে পেঁয়াজ, আদা ও রসুন দিয়ে ২-৩ মিনিট নাড়তে হবে। এতে কারি পেস্ট ও কাঁচামরিচ দিয়ে আরও মিনিট দুয়েক নাড়তে হবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/12/1547279197183.jpg

৩. এতে ফুলকপি দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে নারিকেলের দুধ দিয়ে মেশাতে হবে। দুধে বলক আসলে পানি থেকে মুগ ডাল তুলে এতে দিয়ে দিতে হবে। সবশেষে ম্যাপল সিরাপ দিয়ে সকল উপাদান একসাথে মেশানোর জন্য মিনিট খানেক নাড়তে হবে।

৪. এতে বলক আসলে চুলার আঁচ কিছুটা কমিয়ে দিয়ে ১৫-২০ মিনিট রান্না করতে হবে। দেখতে হবে ডাল ভালোভাবে সিদ্ধ হয়েছে কিনা। ডাল সিদ্ধ হয়ে আসলে এতে শাক দিয়ে আরও কিছুক্ষণ নাড়তে হবে।

৫. শাকপাতা সিদ্ধ হয়ে আসলে এর উপরে লেবুর রস ছড়িয়ে দিতে হবে। স্বাদ ঠিক আছে কিনা দেখে প্রয়োজন অনুযায়ী ম্যাপল সিরাপ , নারিকেলের দুধ কিংবা কারি পেস্ট দিতে হবে। যেহেতু কারি পেস্টে লবণ থাকে, তাই বাড়তি লবণের প্রয়োজন হয় না। তবে প্রয়োজনে কয়েক চিমটি দেওয়া যাবে।

ফুলকপি ও ডাল মাখামাখা হয়ে আসলে নামিয়ে ভাতের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করতে হবে। এই রান্নাটি এয়ার টাইট বক্সে রেফ্রিজারেটরে এক মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে।

আরও পড়ুন: পরিচিত ফুলকপির অপরিচিত ‘ফুলকপির মাঞ্চুরিয়ান’

আরও পড়ুন: বেকড পটেটো-কলিফ্লাওয়ার ডিলাইট

লাইফস্টাইল এর আরও খবর