‘ডিসেম্বরের মধ্যে রাজধানীর বস্তিবাসী পাবে নিরাপদ পানি’



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: ‘সবার জন্য নিরাপদ পানি’ সরকারের এই ভিশন বাস্তবায়নে আগামী ডিসেম্বরের রাজধানীর সব বস্তিবাসীকে মধ্যে বৈধ ও নিরাপদ পানি সরবরাহ ব্যবস্থার আওতায় আনা হবে।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) দুপুরে সংসদ ভবনে একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম একথা বলেন। এর আগে সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচি শুরু হয়। শুরুতেই প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপন করা হয়।

তাজুল ইসলাম বলেন, আগামী ২০২১ সালের মধ্যে রাজধানীতে ভূগর্ভস্থ পানির উৎসের উপর নির্ভরতা কমিয়ে ভূপৃষ্ঠস্থ পানি আর ৩০ ভাগ ভূগর্ভস্থ পানির উৎসের উপর নির্ভরতা নিশ্চিত করে ঢাকাবাসীর মধ্যে পানি সরবরাহ করা হবে।

পানি সরবরাহে ঢাকা ওয়াসা গৃহীত বর্তমানে চলামন বৃহৎ প্রকল্পগুলো হলো- সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার প্রকল্প, পদ্মা যশলদিয়া পানি শোধনাগার প্রকল্প, গর্ন্ধবপুর পানি শোধনাগার প্রকল্প। রাজধানীতে নিরাপদ এবং প্রেসারাইজড পানি সরবরাহ নিশ্চিতকল্পে নতুন ট্রেঞ্চলেস প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সমস্ত পানির লাইন পরিবর্তন করে আধুনিক পানি সরবরাহ ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

মো. আফজাল হোসেনের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, শতভাগ স্যানিটেশন কভারেজের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমানে ৯৯ শতাংশ জনগণ মৌলিক স্যানিটেশনের অন্তর্ভুক্ত। মৌলিক স্যানিটেশনের দিক থেকে সার্কভুক্ত দেশগুলির মধ্যে বাংলাদেশ দ্বিতীয় অবস্থানে।