যুক্তরাষ্ট্র সিনেটে সৌদিকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার সিদ্ধান্ত

ছবি: সংগৃহীত

মানবাধিকার লঙ্ঘনে সৌদি আরবের উপর ‘নিষেধাজ্ঞা’ দেওয়ার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে একটি বিল পাসের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যা ও ইয়েমেনে হুতিদের নির্মমভাবে হত্যা করায় এই সিদ্ধান্তে আসে মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) এক দ্বিদলীয় বৈঠকে এমন সিদ্ধান্তে আসে মার্কিন সিনেটের উচ্চকক্ষ। খবর আল-জাজিরার।

তবে বিলটি পাস হয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে ১০ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র চুক্তিটি বাতিল হবে। সৌদির সাথে যুক্তরাষ্ট্রের তেল চুক্তিও জলে যাবে।

তবে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি এখন পর্যন্ত ইয়েমেনে হামলা চালিয়ে প্রায় ১০হাজার জনকে হত্যা করে। অন্যদিকে তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যার দায়ে এমন সিদ্ধান্তে আসে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশটির সিনেট।

তবে ইয়েমেন হামলায় এর আগে সৌদি আরবকে সমর্থন দেয় যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু নতুন এই নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হলে দু’দেশের সমর্থনের এই বন্ধন ছিন্ন হবে।

এছাড়া খাসোগি হত্যা এই নিষেধাজ্ঞা সিদ্ধান্তের পেছনে নিয়ামক হিসেবে ভূমিকা পালন করছে। প্রসিদ্ধ সাংবাদিকের মৃত্যু নিয়ে যেন ধোঁয়াশা কাটছেই না। কারণ তুরস্কের তদন্তে সৌদি সরকারের উচ্চ মহলের সংশ্লিষ্টতার আভাস পায়।

বৃহস্পতিবার সৌদি অ্যাটর্নি জেনারেলের সংবাদ সম্মেলনে পাঁচ জনকে ফাঁসি দেওয়ার কথা জানায়। কিন্তু সৌদি যুবরাজের কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলে জানায় দেশটির সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা।

আন্তর্জাতিক এর আরও খবর

//election count down